Saturday, 28 January, 2023 খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




৪ যুবকের ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী, একজনের সঙ্গে বিয়ে!

চাঁদপুর: হাজীগঞ্জে অভিযুক্ত চার ধর্ষকের একজনের সঙ্গে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর বিয়ের আয়োজন করেছেন গ্রামের মাতব্বরা।

ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর সালিশি বৈঠকের মাধ্যমে ওই চার ধর্ষকের কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানাও আদায় করেছেন তারা।

এ জরিমানার টাকা দিয়ে আজ (শনিবার) বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে। অভিযুক্ত চার ধর্ষকের মধ্যে পছন্দের পাত্রের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হবে ওই কিশোরীর। ঘটনাটি ঘটেছে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার ১০ নম্বর দক্ষিণ গন্ধর্ব্যপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড ডাটরা শিবপুর গ্রামের গাজী বাড়ীতে।

স্থানীয়রা জানায়, ওই কিশোরী মেয়েটির বাবা নেই। মেয়েটির মা একজন ভিক্ষুক। তিনি মেয়েকে বাড়িতে রেখে ভিক্ষা করতে অন্যত্র চলে যান। আর এ সুযোগে দরিদ্র মায়ের কিশোরী মেয়েকে বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করে লম্পট ওই চার যুবক।

জানা গেছে,  দরিদ্র এই ভিখারির ১৭ বছর বয়সী কিশোরী মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। কিশোরীকে জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে একই বাড়ির চার যুবকের নাম। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে এ নিয়ে সালিশ বৈঠকে বসেন গ্রামের মাতাব্বররা। তারা অভিযুক্ত চার যুবকের কাছ থেকে প্রায় পাঁচ লাখ ২০ হাজার টাকা নিয়ে ব্যাংকে জমা রাখেন। সেই টাকা দিয়ে শনিবার (১১ মে) কিশোরীর পছন্দমতো পাত্রের সঙ্গে বিয়ের আয়োজন করেছেন মাতব্বরা।

অভিযুক্ত ওই চার ধর্ষক হচ্ছে– একই বাড়ির ইসমাইলের ছেলে রাব্বি (১৯), বিল্লালের ছেলে মেরাজ (২২), রফিকের ছেলে ইসমাইল (২১) ও সিরাজের ছেলে আরফিন আমিনুল (২০)।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ইউপি মেম্বার ওহিদুল ইসলাম বলেন, অর্থদণ্ডের টাকাগুলো ব্যাংকে জমা আছে। আমরা সমাজের ইজ্জত রক্ষার্থে বিয়ের ব্যবস্থা করছি। সব প্রস্তুতি শেষ। শনিবার বিয়ে দেব। তবে পাত্র ওই কিশোরীর পছন্দমতো যে কেউ একজন হবে।

 

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by :