Friday, 26 November, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




কমলগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু; মানববন্ধন

কমলগঞ্জ সংবাদদাতা: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ব্যস্ততম চৌমুহনী এলাকায় অটোসিএনজির ধাক্কায় সুমন মিয়া (২০) নামে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (২৪ মার্চ) দুপুর ১২টায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহত সুমন মৌলভীবাজার সরকারী কলেজের বিএসএস ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র এবং কমলগঞ্জ পৌরসভার দক্ষিন কুমড়াকাপন গ্রামের বাবুল মিয়ার বড় ছেলে। মৃত্যুর সংবাদে পরিবারে চলছে শোকের মাতম।

নিহতের স্বজনরা জানিয়েছে, রবিবার সকালে সুমন মিয়া তার বাবা বাবুল মিয়ার সাথে মৌলভীবাজারে যাবার জন্য বাড়ি হতে বের হয়।

দুপুর ১২টায় উপজেলা চৌমুহনী এলাকা আসলে বাবা বাবুল মিয়া ছেলে সুমন মিয়াকে জরুরী একটি কাগজ আনতে বাড়িতে পাঠালে কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল সড়কের চৌমুহনী এলাকায় পায়ে হেঁটে যাবার সময় মৌলভীবাজারগামী একটি অটোসিএনজি(মৌলভীবাজার-থ-১২৬৪৩০) পিছন থেকে তাকে ধাক্কা দেয়।

পরে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে সেখান হতে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে রের্ফাড করলে সেখান হতে সিলেট নিয়ে যাবার পথে আহত সুমনের মৃত্যু হয়। মৃত্যুর খবর শুনে পরিবারে সদস্যরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। শত শত মানুষজন ছুটে আসেন পরিবারকে শান্ত দিতে।

খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। এ দিকে কলেজ ছাত্র সুমনের মমার্ন্তিক মৃত্যুর খবরে কমলগঞ্জে তারসহপাঠি ও ছাত্ররা বিক্ষোদ্ধ হয়ে উঠে।

নিহত সুমনের হত্যাকারী সিএনজির চালক ও গাড়ি আটকের বিচার চেয়ে বিকাল ৫টায় উপজেলা চৌমুহনীতে মানববন্ধন করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আরিফুর রহমান জানান, আমরা লাশ ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

 




 

Developed by :