Thursday, 6 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




জেলা পরিষদ সদস্যের প্রক্সি দিতে গিয়ে কলেজছাত্র ধরা

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম, সাতক্ষীরা।।

এসএসসি পরীক্ষায় সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সদস্য নুরুজ্জামান জামুর স্থলে প্রক্সি দিতে গিয়ে রিপন আহমেদ ওরফে রেজওয়ান রনি (২০) নামে এক কলেজছাত্র ধরা পড়েছেন।

শুক্রবার কালিগঞ্জ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে তাকে আটক করা হয়।



আটক রিপন আহমেদ ওরফে রেজওয়ান রনি কালিগঞ্জ সরকারি কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের দেয়া গ্রামের ইমান আলী গাজীর ছেলে।

নুরুজ্জামান জামু উপজেলা সদরের বাজারগ্রাম রহিমপুর গ্রামের জহুর আলী মোড়লের ছেলে ও উপজেলার মৌতলা কাচামাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি।



জানা গেছে, এসএসসি পাস করার উদ্দেশে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) অধীনে রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য ও কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান জামু। তার রেজিস্ট্রেশন নম্বর ১৮০১০৮৮৩০৪৬।



শুক্রবার অনুষ্ঠিত বাউবি প্রথম বর্ষের বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষায় ছবি বদল করে নুরুজ্জামান জামুর পরিবর্তে পরীক্ষা দিতে যান রিপন আহমেদ। পরীক্ষা চলাকালে অসদুপায় অবলম্বন ও মোবাইল রাখার অপরাধে রিপন আহমেদকে বহিষ্কার করেন ওই কেন্দ্রে দায়িত্বরত কর্মকর্তা উপ-সহকারী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম।

পরে প্রবেশপত্র পর্যবেক্ষণের একপর্যায়ে পরীক্ষায় প্রক্সি দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হলে রিপন আহমেদ রনিকে থানায় সোপর্দ করেন ওই কর্মকর্তা।



এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নুরুজ্জামান জামু বলেন, আমি পরীক্ষার ফরম পূরণ করেছিলাম। কিন্তু পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করিনি। তার পরিবর্তে অন্য একজন পরীক্ষা দেয়ার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।



এ ব্যাপারে কালিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরদার মোস্তফা শাহীন জানান, এ ঘটনায় তাদের দুইজনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা হবে।

 



 


















 



 

Developed by :