Thursday, 19 September, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




একুশে টেলিভিশনের শ্রেষ্ঠ প্রতিনিধির পদক পেলেন মৌলভীবাজারের বিকুল চক্রবর্তী

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: একুশে টেলিভিশনের মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি বিকুল চক্রবর্তী ২০১৮ সালে একুশে টেলিভিশনের সারা দেশের শ্রেষ্ঠ প্রতিনিধির পদক পেয়েছেন।

ঢাকা কারওয়ান বাজারস্থ একুশে টেলিভিশন মিলনায়তনে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এম.পি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ সম্মাননা প্রদান করেন।


শনিবার সকালে একুশে টেলিভিশনের এমডি মেজর জেনোরেল (অব.) মোহাম্মদ আলী শিকদার এর সভাপতিত্বে এ সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে. এম খালিদ এম.পি।

এ সময় বক্তব্য দেন একুশে টেলিভিশনের হেড অফ নিউজ মোহসীন আব্বাস, সিনিয়র সাংবাদিক আবেদ খান, একুশের চিফ নিউজ এডিটর রঞ্জন সেন, জয়েন্ট নিউজ এডিটর বুলবুল চৌধুরী ও একুশের ন্যাশনাল ডেস্ক ইনচার্জ মুসফিকা নাজনীন।


সম্মেলনে সারা দেশের প্রতিনিধি ছাড়াও আরো বিভিন্ন পদবীর সাংবাদিক ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে সাংবাদিক বিকুল চক্রবর্তী এ সম্মাননা পাওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাব।

উল্লেখ্য, বিকুল চক্রবর্তী দীঘ ২৫ বছর ধরে সাংবাদিকতা পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন। তিনি বর্তমানে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন (ইমজা) মৌলভীবাজার ও শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সমপাদকের দায়িত্বে রয়েছেন। একই সাথে দৈনিক ভোরের কাগজের স্টাফ রিপোর্টার ও বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম এবং ডেইলি ইন্ডাস্ট্রির মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি।


বিকুল চক্রবর্তী এর আগে বৃক্ষ ও জীববৈচিত্র সংরক্ষনে বৃক্ষ রোপনে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় পুরস্কার-২০১৪ এ ভূষিত হন। ২০১৮ সালে দৈনিক ভোরের কাগজের সারা দেশের শ্রেষ্ঠ কাগজ প্রতিবেদক এর সম্মাননাও পান তিনি।

এ ছাড়াও মুক্তিযুদ্ধের আলোকচিত্র সংগ্রহ ও প্রদর্শনীর জন্য একাধিক সম্মাননা পান। শ্রেষ্ঠ প্রতিনিধি হওয়া প্রসঙ্গে বিকুল চক্রবর্তী বলেন, ভোরের কাগজের পর একুশে টেলিভিশনের এই সম্মাননা পাওয়ায় তার আগামী দিনের কর্মস্পৃহা বাড়াবে।
































 





Developed by :