Tuesday, 21 May, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




ছয়লেনে এশিয়ান হাইওয়েতে যুক্ত হচ্ছে বিয়ানীবাজার

সাত্তার আজাদ :: দেশের অন্যতম ধনী এলাকা বিয়ানীবাজারের যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল সেকেলে। সরু রাস্তা যাই থাকুক তাতে খানাখন্দক থাকায় যে কেউ একবার এ পথে গেলে আরেকবার যাবার স্বপ্নই ভুলে যেতেন। সেই রাস্তা হবে ছয় লেনের। মধ্যে বিভাজনে থাকবে সবুজ গাছের সারি। তাথে শিল্পায়নে পিছিয়ে পড়া বিয়ানীবাজারে সম্ভাবনার নতুন দুয়ার খুলে দিতে পারে এশিয়ান হাইওয়ে।
সুতারকান্দি-সিলেট সড়কটিও এশিয়ান হাইওয়েতে যুক্ত করতে শুরু হয়েছে জরিপ কাজ।
এশিয়ান হাইওয়ের সাথে যুক্ত হতে শেওলা-চারখাই-সিলেট সড়কটি ছয় লেন করা হবে। ভারতের সুতারকান্দি স্থলবন্দর দিয়ে হাইওয়েটি প্রবেশ করবে সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার শেওলা দিয়ে। এরপর সড়কটি (সার্ভিস দুই লেনসহ ৬ লেন সড়ক) চারখাই, গোলাপগঞ্জ হয়ে সিলেট নগরীর কিনব্রিজ পর্যন্ত আসার কথা। সেখান থেকে এশিয়ান হাইওয়ে চন্ডিপুল হয়ে কাঁচপুর পর্যন্ত যাবে- এমন নকশা প্রণয়ন করেছে সওজ। গত মার্চ মাস থেকে এই সড়কটির সম্ভাব্যতা যাচাই এবং টেকনিক্যাল ও সোস্যাল স্ট্যাডি শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে সড়ক ও জনপথের (সওজ) একটি দল শেওলা-সিলেট বর্তমান আঞ্চলিক সড়কটি মাপঝোঁক করে গেছে।
তবে এই সড়কের নকশায় শেষ পর্যন্ত কিছুটা পরিবর্তন আসতে পারে। যানজট এড়াতে সড়কটি কিনব্রিজ পর্যন্ত না এসে দক্ষিণ সুরমার শ্রীরামপুর থেকে পারাইরচক বাইপাস হয়ে বর্তমান সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের সাথে যুক্ত হতে পারে। সিলেটের শেওলা থেকে নরসিংদীর কাঁচপুর পর্যন্ত এই হাইওয়ের দৈর্ঘ্য প্রায় ২৮০ কিলোমিটার হতে পারে বলে সওজ জানিয়েছে।
সড়ক ও জনপথ বিভাগ সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী রিতেশ বড়–য়া জানান, শেওলা-সিলেট-কাঁচপুর এশিয়ান হাইওয়ের প্রকল্প সওজ ঢাকা অফিস থেকে তদারকি করা হচ্ছে। হাইওয়েটি বাস্তবায়ন করতে হলে কি পরিমাণ জমি অধিগ্রহণ করা লাগবে, অধিগ্রহণকৃত জমির মালিকের সংখ্যা, স্থাপনার সংখ্যা এসব বিষয়ে জরিপ চলছে।

 





Developed by :