Monday, 18 March, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৪ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

জাদুকরী মেসিতে লিঁওকে উড়িয়ে শেষ আটে বার্সেলোনা

বিয়ানীবাজারবার্তা ডেস্ক।।

লিওনেল মেসি নিজে গোল করবেন, সতীর্থদের দিয়ে করাবেন। এ যেন বার্সেলোনার জন্য অঘোষিত রীতিই। আর্জেন্টাইন খুদেরাজের জাদুকরী পারফরম্যান্স নিয়ে আসলে নতুন করে কিছু বলার নেই।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বুধবার রাতে আরও একবার দেখা গেল মেসি জাদু। লিঁওর মাঠে প্রথম লেগে গোলশূন্য ড্র করে চাপে ছিল বার্সেলোনা। ন্যু ক্যাম্পে দলকে সেই চাপ থেকে উদ্ধার করলেন মেসি।



শুধু উদ্ধার করলেন বললে ভুল হবে, প্রতিপক্ষকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে বুঝিয়ে দিলেন ঘরের মাঠে তার দল বার্সা কি করতে পারে। লিঁওর বিপক্ষে এই জয়ে টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে (শেষ আট) নাম লিখিয়েছে আরনেস্তো ভালভার্দের দল।



আগের রাতে তার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করেছেন। মেসি হ্যাটট্রিক পাননি। তবে দলের পাঁচ গোলের মধ্যে চারটিতেই ছিল তার পায়ের ছোঁয়া।



ম্যাচের ১৭ মিনিটেই এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। মেসির বাড়ানো বল নিয়ে লুইস সুয়ারেজ ডি বক্সে ঢুকে গিয়েছিলেন, তাতে ফাউল করেন লিঁওর এক ডিফেন্ডার। পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। আর তাতে মেসির সহজ এক গোল।



৩১ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফিলিপ কৌতিনহো। লুইস সুয়ারেজের অ্যাসিস্ট থেকে বাঁ পায়ের শটে জাল কাঁপান ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৮ মিনিটে এক গোল শোধ করে ম্যাচে ফেরার আশা দেখেছিল লিঁও। গোল করেন লুকাস টাওসার্ট।



৭৭ মিনিট পর্যন্ত ব্যবধান ছিল ২-১। কিন্তু শেষের কয়েকটা মিনিট লিঁওর স্বপ্ন একেবারে চুরমার করে দিয়েছে বার্সা। ৭৮ মিনিটে বক্সের মধ্যে দুই ডিফেন্ডারকে ফেলে ডান পায়ে বল জালে জড়িয়ে দেন মেসি। ৮১ মিনিটে তারই অ্যাসিস্টে ছয় গজ দূরে থেকে গোল জেরার্ড পিকের।



৮৬ মিনিটে আবারও মেসি জাদু। এবার উসমান ডেম্বেলেকে দিয়ে করান এক গোল। মাঝমাঠ থেকে বল নিয়ে বাঁদিকে ডেম্বেলেকে দিয়েছিলেন মেসি। ফরাসি ফরোয়ার্ড সেটা কোনাকুনি শটে ঢুকিয়ে দেন জালে।






















 

Developed by :