Sunday, 2 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




৩ উপজেলায় ভোট স্থগিত: মন্ত্রীর এপিএসের বিরুদ্ধে হচ্ছে মামলা

ঢাকা: প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনের একদিন আগে তিন উপজেলায় ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।  প্রভাব খাটানোর অভিযোগে আগামী ১০ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য এই  নির্বাচন স্থগিত করা হয়। উপজেলা তিনটি হলো, লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী, নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা ও সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলা।


এছাড়া, নির্বাচনে প্রার্থীর পক্ষে প্রভাব খাটানোর অভিযোগে পাটগ্রামের ওসিকে প্রত্যাহার ও সমাজকল্যাণমন্ত্রীর এপিএসের বিরুদ্ধে মামলার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। শুক্রবার (৮ মার্চ) প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইসির সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) আসাদুল হক শুক্রবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


আসাদুল হক বলেন, ‘আগামী রোববার প্রথম ধাপের অন্তত ৮৩টি উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা থাকলেও এখন ৮০টি উপজেলায় নির্বাচন হবে। ’ তিনি বলেন, ‘কমিশন শুক্রবার লালমনিরহাটের আদিতমারী, নেত্রকোনার পূর্বধলা ও সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার ভোট স্থগিত করেছে। এছাড়া আচরণবিধি লঙ্ঘন ও প্রভাব খাটানোর অভিযোগে লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলার ওসি প্রত্যাহার ও সমাজ কল্যাণমন্ত্রীর এপিএসের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন।’


এর আগে, প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে প্রভাব খাটানোর অভিযোগে ৯ সংসদ সদস্যকে সংসদীয় এলাকা ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে ইসি।  তারা হলেন, নাটোর-৪ আসনের এমপি আওয়ামী লীগের আব্দুল কুদ্দুস, নেত্রকোনা-৫ আসনের সাংসদ ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল, রাজশাহী-১ আসনের সাংসদ ওমর ফারুক চৌধুরী, সুনামগঞ্জ-২ আসনের জয়া
সেন গুপ্তা, কুড়িগ্রাম-৩ আসনের এম এ মতিন, হবিগঞ্জ-৩ আসনের মো. আবু জাহির, কুড়িগ্রাম-১ আসনের আছলাম হোসেন সওদাগর, সুনামগঞ্জ-১ আসনের মোয়াজ্জেম হোসেন রতন ও লালমনিরহাট-১ আসনের মোতাহার হোসেন।



























 

Developed by :