Friday, 30 July, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




ছাত্রলীগ কর্মী পলাশের অবস্থা আশঙ্কাজনক, সহযোগিতা প্রয়োজন

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম, শ্রীমঙ্গল।।

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলা ছাত্রলীগের কর্মী বিশ্ব্যজিৎ আচার্য্য পলাশ (২৬) এক ভয়াবহ মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মাথায় আঘাত পেয়ে রাজধানীর অ্যাপোলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

গত শুক্রবার বিকেলে শ্রীমঙ্গল পৌর শহরে চলন্ত অবস্থায় পলাশের মোটরসাইকেলের পেছনের চাকা পাংচার হলে পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পান তিনি।



এ ঘটনার পর তাকে স্থানীয় এবং মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার ডাক্তার অবস্থা গুরুতর বলে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সেখান থেকেও চিকিৎসকরা তাকে রেফার্ড করেন। এরপর তাকে ঢাকার অ্যাপোলো হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।



অ্যাপোলো’র চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, পলাশের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার বাম হাত ও মুখমণ্ডলের বামপাশের অংশ ভেঙে গেছে। একই সঙ্গে তার মাথায় রক্তক্ষরণ হয়েছে। সব মিলে তার অবস্থা গুরুতর এবং চিকিৎসা ব্যয়বহুল।



পলাশের বাবা বেনু আচার্য্য বলেন, ডাক্তাররা জানিয়েছেন তার চিকিৎসায় প্রায় ২০ লাখ টাকা খরচ হবে। ইতোমধ্যে ২ লাখ টাকা দেয়া হয়েছে। কিন্তু বাকি টাকা কোথায় পাব, কীভাবে জোগার করবো সেটা বুঝতে পারছি না।

palash

বেনু আচার্য্য স্থানীয় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। যা সঞ্চয় ছিল সেটা প্রতিনিয়ত ওষুধসহ যাবতীয় খরচ করতে পায় শেষের পথে। ছেলের জীবন বাঁচাতে তিনি দেশের হৃদয়বান মানুষগুলোর সহযোগিতা কামনা করেছেন।



পলাশ শ্রীমঙ্গল উপজেলা ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী। সর্বশেষ কাউন্সিলে তিনি সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ছিলেন। তিনি শহরের বারিধারা (পূর্ব রুপশপুর) এলাকার বাসিন্দা।



পলাশের বন্ধু শুভ্র সেন জাগো নিউজকে জানান, আমরা বন্ধুরা মিলে এক লাখ টাকা জোগার করেছি। কিন্তু তার চিকিৎসার জন্য অনেক টাকা দরকার। জানি না আমরা আমাদের বন্ধুকে বাঁচাতে পারবো কীনা? পলাশের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা যাবে ০১৭২২-৯৯০৪৭৮ নম্বরে।

 



 


















 










 

Developed by :