Saturday, 18 September, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় কি কথা হলো বাবুনগরী ও জিহাদীর

বার্তা ডেস্ক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তার বাসা থেকে বেরিয়ে গণমাধ্যমের কাছে কোনো কথা বলেননি হেফাজতে ইসলামের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী ও মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী। তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে দুই ঘণ্টা বৈঠক করেছেন।

এর আগে সোমবার (৫ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টার দিকে কালো রঙের একটি হায়েস গাড়িতে করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর রাজধানীর ধানমন্ডির বাসায় প্রবেশ করেন হেফাজতের এই দুই শীর্ষ নেতা। দুই ঘণ্টা পর রাত সাড়ে দশটার দিকে তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসা থেকে বের হন।

গণমাধ্যমকর্মীরা বেশ কিছুক্ষণ গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলার চেষ্টা করলেও গাড়ির গ্লাস নামাননি হেফাজত আমির। এ সময় গাড়ির ভেতরে জুনায়েদ বাবুনগরী ও নুরুল ইসলাম জিহাদীকে অনেকটা বিমর্ষ দেখা গেছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএ মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, হেফাজতের আমির ও মহাসচিব সংগঠনের নেতাদের মুক্তি এবং কওমি মাদ্রাসাগুলো খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন। তবে তাদের এই দাবির প্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কোনো প্রতিশ্রুতি ছিলো কি না সে বিষয়ে তিনি কিছু বলেননি।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকের আগে হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইদরীস রাজনীতি সংবাদকে জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে হেফাতে আমিরের সাক্ষাতে কওমি মাদ্রাসা খুলে দেওয়া, হেফাজত নেতা-কর্মীদের মুক্তি ও মামলার বিষয়ে আলোচনা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৪ মে রাত সোয়া ৯টার দিকে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদীর নেতৃত্বে ৬ সদস্যদের একটি প্রতিনিধি দল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ধানমন্ডির বাসায় তার সাথে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন। তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাড়ে ৩ ঘণ্টা বৈঠক করেন। বৈঠকে হেফাজতে ইসলামের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে ৪ দফা দাবি পেশ করা হয়েছিল।

এর আগে গত ১৯ এপ্রিল হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদীর নেতৃত্বে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন সংগঠনটির নেতারা।

 




 

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by :