Monday, 14 June, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




ভূমিকম্পে ফাটল : রাজা স্কুলের ভবন পরিত্যক্ত ঘোষণা

সিলেট: সিলেট নগরী ও আশেপাশে মাত্র ১ মিনিটের ব্যবধানে সোমবার (৭ জুন) সন্ধ্যায় দু’দফা  ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।

এই ভূমিকম্পে সিলেট নগরীর রাজা গিরিশচন্দ্র (জিসি) স্কুল ভবনে ফাটল দেখা দেয়। সোমবার সন্ধ্যায় সিলেটে দুই দফা ভূমিকম্পের পর নগরীর বন্দরবাজার এলাকার ওই স্কুল ভবনে ফাটল দেখতে পান স্থানীয়রা। এতে আশপাশের এলাকায় আতঙ্ক দেখা দেয়। সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ রাজা জিসি উচ্চ বিদ্যালয়। শতবর্ষি এই বিদ্যালয়ে ১৮৮৬ সালে নির্মাণ করেন প্রখ্যাত দানশীল ও শিক্ষানুরাগী রাজা গিরিশ চন্দ্র।

এদিকে, মঙ্গলবার (৮ জুন) বেলা ১২ টার দিকে ফাটল ধরা স্কুল ভবনটি পরিদর্শন করেন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল হাকিম। পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘মূল ভবনের স্ট্রাকচার বেশ পুরনো। তাই এটি ভূমিকম্প সহনীয় করে ভিত্তি তৈরি করা হয়নি। কিন্তু এখন যেসব ভবন হচ্ছে সবগুলো ভূমিকম্প সহনীয় করে হয়। এজন্য ভবনটিতে ফাটল ধরা দিয়েছে। তাই এটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।’

শ্রেণিকক্ষের চাহিদা মিটাতে ৬ তলা নতুন একটি ভবন নির্মাণ করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বর্তমানে রাজা জিসি স্কুলের জন্য একতলা একটি ভবনের বাজেট বরাদ্দ আছে। এ ভবনটির বরাদ্দ বাড়িয়ে ৬ তলায় উন্নীত করা হবে। একই সাথে তাদের শ্রেণিকক্ষের চাহিদা দ্রুত মিটানো হবে।’

অপরদিকে, ভূমিকম্পে রাজা জিসি স্কুলে ফাটল ধরার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক পরিদর্শন করেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

এর আগে (২৯ মে) শনিবার সকাল ১০টা ৩৬ মিনিটে সিলেট নগরীতে ৩ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। এরমাত্র ১৪ মিনিটের মাথায় অর্থাৎ ১০টা ৫০ মিনিটে ৪ দশমিক ১ মাত্রায় আবারো হয় ভূমিকম্প। দ্বিতীয় দফার ভূমিকম্পে নগরীর মানুষ অনেকটা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। এর কিছু সময় যেতে না যেতেই সকাল সাড়ে ১১টায় ২ দশমিক ৮ মাত্রায় আরেকদফা ভূমিকম্প হয় সিলেট নগরী ও আশেপাশে। আর সর্বশেষ ৩০ মে (রবিবার) বেলা ১টা ৫৮ মিনিটে রিখটার স্কেল ৪ মাত্রায় ভূমিকম্প হয় নগরীতে।

 

Developed by :