Sunday, 13 June, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




৬ দফা’র প্রথম শহীদ মনু মিয়া স্মরণে বিয়ানীবাজারে কর্মসূচি কাল

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম: ঐতিহাসিক ৭ জুন কাল। বাঙালির স্বাধিকার আন্দোলন তথা মুক্তির সনদ ৬ দফা দিবস। ১৯৬৬ সালের এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত ঐতিহাসিক ছয় দফা আন্দোলনের গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের সূচনা হয়েছিল। ওইদিন ঢাকার তেজগাঁও এ হরতাল চলাকালে পুলিশের গুলিতে প্রথম শহীদ হন শ্রমিক নেতা মনু মিয়া। তাঁর বাড়ি বিয়ানীবাজার পৌর এলাকার নয়াগ্রামে। এজন্য স্থানীয়ভাবে এ দিনটিকে শহীদ মনু মিয়া দিবস হিসেবে পালন করা হয়। দিনটি স্মরণে শহীদ মনু মিয়া স্মৃতি পরিষদ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

জানা যায়, তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর শোষণ ও বৈষম্য নীতির বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি লাহোরে ঐতিহাসিক ছয় দফা প্রস্তাব পেশ করেন। ছয় দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ১৯৬৬ সালের ৭ জুন আওয়ামী লীগের ডাকে পূর্ব বাংলায় হরতাল চলাকালে পুলিশ ও ইপিআর নিরস্ত্র মানুষের ওপর গুলি চালায়। এতে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে মনু মিয়া, মুজিবুল হকসহ অনেকে শহীদ হন। ছয় দফা হয়ে ওঠে বাঙালির মুক্তির সনদ।

এদিকে, আগামীকাল সোমবার বৈশ্বিক করোনাভাইরাস মহামারি মুহূর্তে শহীদ মনু মিয়া স্মৃতি পরিষদ সীমিত পরিসরে দিবসটি পালনের উদ্যোগ নিয়েছে।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, নয়াগ্রামে স্থাপিত শহিদ মনু মিয়া স্মৃতিস্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং দোয়া মাহফিল। ওইদিন দুপুর সাড়ে ১২ টায় শহীদ মনু মিয়া স্মৃতি পরিষদের পক্ষ থেকে স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। এরপর স্থানীয় মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে দোয়া মাহফিল।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে নির্ধারিত কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্মৃতি পরিষদের আহ্বায়ক বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মো. আলী আহমদ ও সদস্য সচিব খালেদ জাফরী।

উল্লেখ্য, মনু মিয়ার আত্মত্যাগকে স্মরণে রাখতে ২০১৭ সালে নয়াগ্রামে তাঁর বসতবাড়িতে ‘শহীদ মনু মিয়া স্মৃতি সৌধ’ নির্মাণ করা হয়। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের উদ্যোগে এতে ব্যয় হয় সাড়ে ৬ লক্ষ টাকা। প্রতিবছর ৬ দফঅ দিবসে এ স্মৃতি সৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণসহ নানা কর্মসূচি পালন করা হয়।

 

Developed by :