Friday, 30 July, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




কানাডার স্কুল থেকে ২১৫ শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধার

বার্তা ডেস্ক: কানাডার একটি আবাসিক স্কুল থেকে ২১৫ শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে। ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় ক্যামপলুপস ইন্ডিয়ান রেসিডেন্সিয়াল স্কুলটি ছিল আদিবাসী শিশুদের জন্য। এটি ১৯৭৮ সালে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। শিশুরা ওই স্কুলেরই শিক্ষার্থী ছিল। বৃহস্পতিবার স্থানীয় একটি আদিবাসী সংগঠন বিষয়টি জানিয়েছে। এ ঘটনাকে হৃদয়বিদারক বলে মন্তব্য করেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। খবর বিবিসি, এএফপি ও রয়টার্সের।

টিকেমপুলস টি সিকওয়েপেমস নামের আদিবাসী সংগঠনটি এক বিবৃতিতে জানায়, স্কুলে এক জরিপ চলাকালে রাডারের মাধ্যমে ‘গণকবরে’ শিক্ষার্থীদের দেহাবশেষ থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। সংগঠনের প্রধান রোজান ক্যাসিমির বলেন, ‘প্রাথমিক অনুসন্ধানে অভাবনীয় ক্ষতির বিষয়টি জানা গেছে। মৃতদের মধ্যে কয়েকজনের বয়স ৩ বছরের মতো। স্কুল কর্তৃপক্ষের নথিতে শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর বিষয়টি উল্লেখ নেই। জাদুঘর বিশেষজ্ঞ ও শব পরীক্ষকদের নিয়ে শিশুদের মৃত্যুর কারণ ও সময় খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

ঘটনাকে হৃদয়বিদারক আখ্যা দিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো টুইটবার্তায় বলেন, ‘এ ঘটনা আমাদের দেশের ইতিহাসের লজ্জাজনক ও অন্ধকারময় অধ্যায়কে স্মরণ করিয়ে দেয়।’

কানাডার আবাসিক স্কুল ব্যবস্থায় আদিবাসী শিক্ষার্থীদের জবরদস্তিমূলক পরিবারবিচ্ছিন্ন রাখায় এই ‘সাংস্কৃতিক গণহত্যা’ সংঘটিত হয়েছে। বিলুপ্ত এই শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে ছয় বছর ধরে একটি তদন্ত হয়েছে। তদন্তে শিশুদের ওপর বর্বর শারীরিক নির্যাতন, ধর্ষণ, অপুষ্টি ও নৃশংসতার তথ্য উঠে এসেছে। স্কুলটির প্রায় দেড় লাখ শিক্ষার্থী এ বর্বরতার শিকার হয়েছে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ১০০ শিক্ষার্থীর। তবে নতুন পাওয়া ২১৫ দেহাবশেষ এই মৃত্যুসংখ্যায় যোগ করা হয়নি। অটোয়ার পক্ষ থেকে খ্রিষ্টান গির্জা স্কুলটি পরিচালিত হতো।

 

Developed by :