Tuesday, 27 July, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১২ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




সেনাবাহিনীর হাতে মালির প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী আটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালির প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে আটক করেছে দেশটির সামরিক বাহিনী। অন্তর্র্বতী সরকারের মন্ত্রিসভায় রদবদল করার পর সোমবার (২৪ মে) তাদের আটক করা হয়।

সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, মালির প্রেসিডেন্ট বাহ এনদাও, প্রধানমন্ত্রী মোকতার উয়ানে এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী সোলাইমান ডোকুরেকে আটক করে রাজধানী বামাকো কাছেই একটি সামরিক ঘাঁটিতে নেওয়া হয়েছে।

মালির প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে আটকের এ ঘটনা নতুন করে দেশটির রাজনৈতিক পরিবেশ অনিশ্চিত করে তুলল। গত আগস্ট মাসে দেশটিতে সামরিক অভ্যুত্থান হয় এবং অভ্যুত্থানের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বুবাকারকে সেসময় ক্ষমতাচ্যুত করা হয়।

সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে প্রেসিডেন্ট বাহ এনদাও এবং প্রধানমন্ত্রী মোকতার উয়ানে ১৮ মাস মেয়াদী অন্তর্র্বতী সরকারের পরিচালনা করছিলেন। একইসঙ্গে দেশে আবারও বেসামরিক শাসন ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চালাচ্ছিলেন। কিন্তু অন্তর্র্বতী সরকারের মন্ত্রিসভা থেকে দুই সেনা কর্মকর্তাকে সরিয়ে দেওয়ার পর ফের সংকটের সূচনা হয়। এক পর্যায়ে আটক করা হয় প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে।

এদিকে সামরিক বাহিনীর হাতে আটক মালির প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর অবিলম্বে মুক্তি দাবি করেছে জাতিসংঘ। দেশটিতে অবস্থিত জাতিসংঘ মিশন থেকে এই দাবি জানানো হয়। ফরাসি ভাষায় দেওয়া এক টুইট বার্তায় এ সময় পশ্চিম আফ্রিকার এই দেশটির সকল পক্ষকে শান্ত থাকারও আহ্বান জানায় সংস্থাটি।

সোমবার রাতে বার্তা সংস্থা এএফপিকে প্রধানমন্ত্রী মোকতার উয়ানে বলেন, সেনা সদস্যরা তাকে নিয়ে যেতে এসেছে। বার্তাসংস্থাটি বলছে- এরপরই টেলিফোন লাইনটি কেটে যায়।

আফ্রিকান ইউনিয়ন, পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোর অর্থনৈতিক জোট, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) এবং যুক্তরাষ্ট্র মালির প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে আটকের নিন্দা জানিয়ে বলেছে, কোনো শর্ত ছাড়াই মালির শীর্ষ রাজনীতিকদের মুক্তি দিবে হবে। খবর বিবিসি, রয়টার্স

 

Developed by :