Tuesday, 27 July, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১২ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




বিয়ানীবাজারে হত্যা ও মাদক মামলায় নারীসহ গ্রেপ্তার ৫

বিয়ানীবাজার: বিয়ানীবাজারে হত্যা ও মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী নারীসহ ৫জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত সিলেটের কোতোয়ালী ও জকিগঞ্জ থানা এলাকা থেকে পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে করে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ।

থানা পুলিশ জানায়, বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের আদিনাবাদ শেখপাড়া বাসিন্দা, চারখাই বাজারের ব্যবসায়ী কামাল হোসেন (৪২) ২০১৯ সালের ১০ অক্টোবর নিখোঁজ হন। এ ঘটনার ১০ দিন পর তার বড়ভাই জালাল আহমদ বিয়ানীবাজার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর ৩ ডিসেম্বর ছোটভাইয়ের খোঁজ না পেয়ে ব্যবসায়ী কামাল হোসেনের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী আমির উদ্দিন ওয়রফে আলী হোসেনসহ ৯জনের নামোল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ৩/৪জনের বিরুদ্ধে বিয়ানীবাজার একটি মামলা দায়ের করেন (সিআর মামলা নং-৩৫৮/২০১৯)। পরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বিয়ানীবাজার থানার তৎকালীন পুলিশ পরিদর্শক জাহিদুল হকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় প্রধান অভিযুক্ত আমির আলীকে গ্রেপ্তার এবং তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ব্যবসায়ী কামাল হোসেনের কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়।

সর্বশেষ শুক্রবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে সিলেটের কোতোয়ালি থানা এলাকা থেকে একই মামলার এজাহারনামী আসামী আলীম উদ্দিন (৩২) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সে জকিগঞ্জ উপজেলার চারিগ্রাম এলাকার মৃত মুছব্বির আলী ওয়রফে মছই মিয়ার ছেলে।

থানা পুলিশ আরও জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে মাদক মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী মোঃ ফারুক আহমদ (৫০)কে জকিগঞ্জ থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে বিয়ানীবাজার উপজেলার জালালনগর এলাকার মৃত মনির আলীর ছেলে।

অন্যদিকে, একই রাতে পুলিশের পৃথক আরেক অভিযানে এক নারীসহ পরোয়ানাভুক্ত তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। তারা হচ্ছেন- রফিকুল ইসলাম দুলাল (৪৫), হুমায়ুন কবির (২৭) এবং একজন মহিলা।

বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ হিল্লোল রায় জানান, গ্রেপ্তারকৃত ৫জনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, সিলেট জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম’র সার্বিক নিদের্শনা মোতাবেক সাজাপ্রাপ্ত আসামীসহ পরোয়ানা আসামী গ্রেফতারের অভিযান চলমান থাকবে।

 




 

Developed by :