Monday, 17 May, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




নিউইয়র্কে সাংবাদিক এম সিন আহাদ জটিল রোগে আক্রান্ত, দোয়া কামনা

অসুস্থ এম সিন আহাদ এর সাথে তার ছোট ভাই লেখক রিজু মোহাম্মদ। ফাইল ফটো

রিজু মোহাম্মদ 

আল্লাহ তোমার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তুমি বান্দাদের জন্য যে সিদ্ধান্ত ধার্য কর তার মধ্যে আমাদের জন্য মঙ্গল আছে তোমার আনুগত্য বান্দা হিসেবে এটাই আমাদের বিশ্বাস! তুমি ধৈর্যশীলদের পছন্দ করো তাই আমরাও ধৈর্য ধরে আছি…

আসসালামু আলাইকুম।
আমার বড় ভাই আব্দুল আহাদ (যিনি এম সিন উদ্দিন নামেও পরিচিত) গত প্রায় এক মাস ধরে নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন‌। তিনি একটি বিরল রোগে ভুগছেন ডাক্তারের ভাষ্যমতে পৃথিবীতে এ ধরনের রোগীর সংখ্যা দুই থেকে আড়াই শ। এতদিন অবস্থা মোটামুটি ভালো থাকলেও গত দুদিন থেকে একটু সংকটাপন্ন হয়ে পড়েন বর্তমানে তিনি ডাক্তারদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে আছেন একই সাথে ওনার পরিবারসহ হাজারো ভালোবাসার মানুষের দোয়ার মধ্যেও আছেন। আমার ভাই আপনাদের অত্যন্ত প্রিয় জন যদি আপনাদের দোয়া এবং ভালোবাসা অব্যাহত থাকলে আমরা বিশ্বাস করি আল্লাহর অশেষ রহমতে তিনি আমাদের মাঝে সুস্থ হয়ে ফিরে আসবেন।

আমরা সাত ভাই দুই বোনের মধ্যে তিনি হলেন তৃতীয় আমাদের বাবার পরে তিনি আমাদের অভিভাবক হিসাবে দেশে থাকা অবস্থায় এবং বর্তমানে সবকিছু দেখাশোনা করেন। আমার জানা মতে আমাদের পরিবার ছাড়া অসংখ্য অগণিত মানুষের সহযোগিতা সব সময় প্রথমে থাকতেন তিনি।

কোন সময় নিজেকে জাহির না করে সকলের সাথে নিয়ে কাজ করার শিক্ষা তার কাছ থেকে পেয়েছি। এতকিছু করলেও নিজেকে সামনে তুলে ধরেনি কখনো।

বিয়ানীবাজারে সংবাদকর্মী হিসেবে তাঁর সুখ্যাতি রয়েছে। তিনি চেষ্টা করেছেন সবসময় তরুণদের প্রাধান্য দিয়ে প্রবীনদের সাথে সুসম্পর্ক গড়ে তোলে বিয়ানীবাজারের গণমাধ্যমকে শক্তিশালী করতে। বিয়ানীবাজারের প্রথম অনলাইন পত্রিকা এবং আইপি টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠার অন্যতম কারিগর হলেও কখনও এটা নিয়ে দম্ভ করতে দেখিনি। আমিও এই প্রতিষ্ঠানগুলো তৈরিতে ক্ষুদ্র সহযোগিতা করেছি বা করে যাচ্ছি আমাকেও শিখিয়েছেন কিভাবে মাটির দিকে তাকিয়ে উপরে ওঠা যায়।

তিনি অনেকগুলো সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত আছেন একই সাথে বিয়ানীবাজার উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসা এবং স্কুল কমিটি রয়েছে তার কর্মের ছাপ। তিনি বিয়ানীবাজার উপজেলার অন্যতম বৃহৎ ঈদ জামাতের উদ্যোক্তাদের একজন জেটি বিয়ানীবাজার স্টেডিয়াম মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।

তার অসুস্থতা খবর পাওয়ার পর বিভিন্নভাবে তার ভালোবাসার মানুষ জন খোঁজ খবর নিচ্ছেন। পরিবারের পক্ষ থেকে আমরাও যথাসম্ভব আপনাদেরকে তার সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানার চেষ্টা করছি। বর্তমান পরিস্থিতির কারণে পরিবার থেকে শুধুমাত্র আমার দুই ভাই হসপিটালে যেতে পারে তাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য আপনাদেরকে দেয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা করি।

আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাদের সকলের কাছে আমরা কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ জানাচ্ছি আপনারা আমাদের ভাইকে দোয়াতের স্মরণ করার জন্য। উনার এ অবস্থায় না আসলে হয়তো জানতামই না কত শত মানুষ তার জন্য আজ কান্না করছে। বিষয়টি আমাদেরকে আপ্লুত করছে একই সাথে কৃতজ্ঞতার বন্ধনে আবদ্ধ করেছে। আল্লাহ যেন আপনাদের এই ঋণ শোধ করার সুযোগ দেন।

আমরা দেখেছি আপনারা অনেকেই ভাইয়ের জন্য বিশেষ দোয়া-মুনাজাতের আয়োজন করছেন। পরিবারের পক্ষ থেকে এর জন্য আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। প্রবাসী সকলের কাছে বিনীত অনুরোধ বর্তমান পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে সবাই নিরাপদে এই কাজটুকু করবেন। দেশের সবাইকে নিরাপদে থাকার অনুরোধ জানাচ্ছি।

ভাইয়ের জন্য আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা অব্যাহত থাকুক। আল্লাহর রহমতে তিনি সুস্থ হয়ে ফিরে আসুন আমাদের সকলের মাঝে!

লেখক: প্রবাসী সাংবাদিক,  অসুস্থ এম সিন আহাদ এর ছোট ভাই।

এদিকে, প্রবাসী সাংবাদিক এম সিন উদ্দিন আহাদ এর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন সাপ্তাহিক বিয়ানীবাজার বার্তা পত্রিকার সম্পাদক ছাদেক আহমদ আজাদ। এজন্য তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

 

Developed by :