Monday, 21 September, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




যুক্তরাষ্ট্রে টিকটক ও উইচ্যাট বন্ধের নির্বাহী আদেশে ট্রাম্পের সই

বিনোদন ডেস্ক: চীনভিত্তিক ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম টিকটক এবং বার্তা আদান প্রদানের প্লাটফর্ম উইচ্যাট বন্ধের নির্বাহী আদেশে সই করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর বিবিসি।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) স্থানীয় সময় রাতে সই করা নির্বাহী আদেশে বলা হয়েছে, জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে টিকটক ও উইচ্যাটের বিরুদ্ধে এই কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হলো।

বিবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্পের ওই নির্বাহী আদেশ ৪৫ দিন পর থেকে কার্যকর হবে। অর্থাৎ, তখন ওই অ্যাপ দুটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স এবং টেনসেন্টের সঙ্গে সকল ধরনের লেনদেন নিষিদ্ধ হয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্রে।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে দারুণ জনপ্রিয় হয়ে ওঠা টিকটকের মাধ্যমে আমেরিকানদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন মার্কিন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা।

তবে, এই অ্যাপের ওপর চীন সরকারের নিয়ন্ত্রণ বা সরকারকে তথ্য যোগানোর অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছে টিকটক।

এর আগে, বাণিজ্য যুদ্ধ, হংকংয়ে চীনের আধিপত্য, দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের নিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধি এবং করোনাভাইরাস মহামারির মতো বিষয় নিয়ে বেইজিংয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটনের সম্পর্কের অবনতির মধ্যে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ১ আগস্ট টিকটক নিষিদ্ধ করার ইঙ্গিত দেন।

অন্যদিকে, নিষেধাজ্ঞার দুই আলাদা নির্বাহী আদেশে ট্রাম্প প্রশাসন জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে মোবাইল ফোনে চীনা কোম্পানির অ্যাপ ব্যবহার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় নিরাপত্তা, পররাষ্ট্রনীতি এবং অর্থনীতির ওপর হুমকিও বাড়ছে। অ্যাপ ব্যবহারকারীদের যেসব তথ্য টিকটক নেয়, তার মাধ্যমে চীন যুক্তরাষ্ট্রসরকারের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ট্র্যাক করতে পারবে। তাদের ব্ল্যাকমেইল করার জন্য ব্যক্তিগত তথ্য জড়ো করতে পারবে কিংবা করপোরেট গুপ্তচরবৃত্তি চালাতে পারবে।

পাশাপাশি, হংকংয়ের বিক্ষোভ কিংবা উইঘুরের মুসলমানদের ওপর নিপীড়নের মত স্পর্শকাতর রাজনৈতিক বিষয়গুলো টিকটক সেন্সর করে – এমন খবর পাওয়ার কথাও ট্রাম্প উল্লেখ করেছেন।

অপরদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই পদক্ষেপের ব্যাপারে বাইটড্যান্স বা টেনসেন্টের কোনো প্রতিক্রিয়া তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি।

 

Developed by :