Monday, 1 June, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়ানো মুমিনের কাজ : জুবের আহমদ

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম: বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা জুবের আহমদ বলেছেন, দুর্যোগকালিন মুহূর্তে মানুষের পাশে দাঁড়ানো মুমিনের কাজ। এ সংগঠন প্রতিষ্ঠাকাল থেকে মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। যা এখন মামুন-মুন্না-জাকিরের নেতৃত্বে আরো উৎকৃষ্ট উদাহরণ রচনা করছে।

সোমবার (১৮ মে) বেলা দু’টায় মাথিউরা ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে আয়োজিত কোরআনে হাফেজদের মধ্যে আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

মাথিউরা ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সিহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাপ্তাহিক বিয়ানীবাজার বার্তা পত্রিকার সম্পাদক ছাদেক আহমদ আজাদ এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিয়ানীবাজার জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি ও এবি টিভির সিইওও সাংবাদিক আহমেদ ফয়সাল, বিয়ানীবাজার উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজানুল ইসলাম লায়েক, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের দু’বারের সাবেক সদস্য কেএইচ সুমন।

সভাপতির বক্তব্যে সিহাব উদ্দিন বলেন, করোনাভাইস মহামারি সময়ে মাথিউরা ইউনিয়নের কোরআনে হাফেজদের পাশে দাঁড়িয়ে বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে নেতৃবৃন্দ তাদের উন্নত মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। এজন্য তিনি ইউনিয়নবাসীর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।

সাংবাদিক আহমেদ ফয়সাল বলেন, প্রবাসের সংগঠনগুলো দেশ ও বিদেশের মানুষের মধ্যে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করছে। তাঁরা যেকোন দুর্যোগে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ান। এজন্য আমরা তাদেও প্রতি কৃতজ্ঞ।

শ্রমিক নেতা শাহজানুল ইসলাম লায়েক বলেন, কোরআনে হাফেজদের ঈদ উপহার দিয়ে সত্যিই বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ প্রশংসিত হয়েছেন। আমরা তাদের কাছ থেকে আগামীতে আরো সৃজনশীল কর্মকান্ড প্রত্যাশা করছি।

ছাত্রনেতা কেএইচ সুমন বলেন, প্রবাসীরা আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি। তাঁরাই আমাদের আত্মার-আত্মীয়। এজন্য দুর্যোগের ঘনঘটা শুরু হলেই সর্বপ্রথম আমাদের সাহায্যে প্রবাসীরা এগিয়ে আসেন। এবারও এর ব্যত্যয় ঘটেনি। এজন্য তিনি মামুন-মুন্না-জাকিরের নেতৃত্বাধীন পরিষদের সকল সদস্যদের ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব মুহূর্তে বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র নেতৃবৃন্দ উপজেলার দু’শতাধিক কোরআনে হাফেজ, শতাধিক সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। তাদের এ মহতি কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

 

Developed by :