Sunday, 5 April, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ২২ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




১৫ বছর পর লন্ডন প্রবাসীর হাত থেকে রক্ষা পেল ৫০ পরিবার!

মোসাইদ রাহাত: ১৫ বছর পর লন্ডন প্রবাসীর হাত থেকে রক্ষা পেল ৫০ পরিবার। সুনামগঞ্জ পৌর শহরের ঘোলঘরের দাশপাড়া এলাকায় লন্ডন প্রবাসী মানিক মিয়া পৌরসভার নির্মিত ড্রেনের রাস্তা দখল করে দেয়াল নির্মাণ করে বন্ধ করে দেওয়ায় বিপাকে পড়েন ওই এলাকার প্রায় ৫০ পরিবার।

অনেকবার লন্ডন প্রবাসীকে তার এ দেয়াল ভাঙার জন্য এলাকাবাসী অনুরোধ করলেও তিনি সেটা আমলে না নেয়ায় পরিপ্রেক্ষিতে মেয়র বরাবর আবেদন করলে তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) দেয়ালটি ভাঙার নির্দেশ দেন।

সরেজমিনে বৃহস্পতিবার গিয়ে দেখা যায়, প্রায় ১৫ বছর আগে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা ও বর্তমানে লন্ডন প্রবাসী মানিক মিয়া দাপট দেখিয়ে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে পৌরসভার ড্রেন দখল করেছেন। এতে জনসাধারণের চলাচলের পথ বন্ধ হয়ে যায়। বছরের পর বছর ধরে বিকল্প রাস্তা ব্যবহার করে চলছিল ওই এলাকার মানুষের যাতায়াত। যার ফলে ওই এলাকার মানুষের চলাচল থেকে শুরু করে বিভিন্ন রকমের কাজ করতে হতো বিকল্প রাস্তা ব্যবহার করে। বৃহস্পতিবার দেয়ালটি ভেঙে দেয়ায় খুশি হয়েছেন ওই এলাকার সবাই। এ কাজের জন্য পৌর মেয়রকে দিয়েছে সাধুবাদ।

eviction

দাশপাড়া এলাকার বাসিন্দা সোনালী বেগম বলেন, ১৫ বছর পর আমাদের মুক্তি হলো। এ ড্রেনের রাস্তা দিয়ে একসময় আমাদের যাতায়াত ছিল। কিন্তু লন্ডন প্রবাসী ওই ড্রেনের রাস্তা দখল করে নেন এবং ওই জায়গায় দেয়াল নির্মাণ করে দেয়ায় আমাদের চলাচলে অনেক সমস্যা হতো। আমরা সবাই খুব খুশি হয়েছি। আগের মতো আমরা এ রাস্তা ব্যবহার করতে পারবো।

একই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মালেক বলেন, আমাদের কিশোর বয়স কেটেছিল এ রাস্তা ব্যবহার করে। প্রতিবেশীদের সঙ্গে যোগাযোগ, নদী থেকে পানি নিয়ে আসা গোসল সবই করা হতো এ রাস্তা দিয়ে গিয়ে। কিন্তু লন্ডন প্রবাসী মানিক মিয়া তার ক্ষমতার ব্যবহারে এখানে দেয়াল তৈরি করে দিয়ে আমাদের চলাচলে বাধা প্রদান করেছেন। অনেকবার উনাকে আমরা অনুরোধ করলেও উনি কোনো তোয়াক্কা করেননি।

eviction

জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৃজন দেবনাথ বলেন, এ দেয়াল ভাঙার মাধ্যমে এ এলাকার মানুষ লন্ডন প্রবাসীর জিম্মি অবস্থা থেকে মুক্ত হলো। একজন লন্ডন প্রবাসী সরকারি জায়গা দখল করে ১৫ বছর ভোগ দখল করেছেন। আজকে আমরা খুশি, সঙ্গে ধন্যবাদ জানাই পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও পৌরসভার মেয়র নাদের বখতকে।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত বলেন, পৌরসভার জায়গায় ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে। সেই জায়গার উপর কোনো ব্যক্তি দেয়াল তুলতে পারেন না। আমরা সেটি খোঁজখবর নিয়ে জানতে পারি তিনি অবৈধভাবে ড্রেনটির উপর দেয়াল ও বাথরুম নির্মাণ করেছেন তাই সেটি ভেঙে দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে এমন কাজের পুনারবৃত্তি হলে তাকে শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।

 

Developed by :