Thursday, 29 September, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




ঋণের দায় নিয়ে বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র ফারুকুল হকের দায়িত্বগ্রহণ

ছাদেক আহমদ আজাদ: এক কোটি ৩৪ লক্ষ ৫৫ হাজার ২৪৩ টাকা ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে বিয়ানীবাজার পৌরসভার দায়িত্বগ্রহণ করলেন নবনির্বাচিত মেয়র জিএস ফারুকুল হক। রোববার (১৭ জুলাই) বিকেল ৪ টায় পৌরসভা হলরুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পৌর প্রশাসক মো. আশিক নূর নবাগত মেয়রের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। এরপর বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন পৃথকভাবে ‘প্রতিবাদী’ মেয়র ফারুকুল হককে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

মেয়রের চেয়ারে বসে ফারুকুল হক প্রথমেই আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করেন। তিনি দেশে-বিদেশে বসবাসরত সকল শুভাকাঙিক্ষদের ধন্যবাদ জানান এবং নির্বাচনকালীন সময়ের মতো আগামীতেও পৌরসভা পরিচালনায় গুরুত্বপূর্ণ মতামত ও সহযোগিতা কামনা করেন। মেয়র ফারুক বলেন, আমি আওয়ামী লীগের একজন নির্যাতিত কর্মী। এ হিসেবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা এবং প্রধানমন্ত্রীর ‘গ্রাম হবে শহর’ এ স্লোগান বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করব। তিনি বলেন, বিগত পৌর পরিষদের কোটি টাকার উপর ঋণ আমাকে মেটাতে হবে। পৌরসভার বিভিন্ন উৎসের কর যদি সবাই পরিশোধ করেন তাহলে অনায়াসে তা মেটানো সম্ভব।

পৌরসভার কাক্সিক্ষত উন্নয়নে প্রকল্প তৈরি করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা অনুমোদন করবেন বলেও বিশ্বাস করেন মেয়র ফারুকুল হক। তিনি বলেন, পৌর পরিষদের মতামতের ভিত্তিতে সকল কার্যক্রম পরিচালনা হবে।

এরআগে বেলা ১১ টায় সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের হলরুমে ফারুকুল হককে মেয়র হিসেবে শপথবাক্য পাঠ করান বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন। একই স্থানে শপথ নেন পৌরসভার সকল কাউন্সিলর। পরে শপথ নেয়া প্রত্যেক জনপ্রতিনিধিকে ফুল দিয়ে অভিসিক্ত করেন বিভাগীয় কমিশনার। এ সময় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও বিশিষ্টজন উপস্থিত ছিলেন। ভোট গ্রহণের ১৮ দিন পর গত ৩ জুলাই নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের নামে সরকারি গেজেট প্রকাশিত হয়। এরপর গতকাল তাঁরা শপথ নেন। এরআগে গত ৬ জুন থেকে এক মাস ১০ দিন প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেন ইউএনও।

জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন নবাগত মেয়র ফারুকুল হক

দায়িত্বগ্রহণের পর মেয়র ফারুকুল হক উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে স্থাপিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে অধিকাংশ পৌর কাউন্সিলর সেখানে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

নবাগত মেয়ররের সাথে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা সারওয়ার হোসেনের সৌজন্য সাক্ষাৎ

সন্ধ্যায় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে পৌরসভা কার্যালয়ে গিয়ে নবাগত মেয়র ফারুকুল হকের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. সারওয়ার হোসেন। এ সময় তিনি উন্নয়ন কর্মকা- পরিচালনায় মেয়রকে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

জানা যায়, কোন ধরণের বিতর্ক ছাড়াই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে গত ১৫ জুন বিয়ানীবাজার পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। পৌরসভার দ্বিতীয় এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীকে বিপুল ভোটে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হন বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদ ’৯৪ এর জিএস ও দলের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. ফারুকুল হক। চামচ প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছিলেন ৪ হাজার ১০০ ভোট। নৌকা প্রতীক নিয়ে ২ হাজার ২৭০ ভোট পান সদ্য সাবেক মেয়র মো. আব্দুস শুকুর। তিনি নিজের কেন্দ্রসহ সবক’টি কেন্দ্রে পরাজিত হন। তবে, নির্বাচনে ২৩ শ’ ১৮ ভোট পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আব্দুস সবুর।

পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ১০জন, কাউন্সিলর পদে ৪৭জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০জন।

এদিকে, রোববার সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে শপথগ্রহণ করেন পৌরসভার নবনির্বাচিত সংরক্ষিত কাউন্সিলর শেফা বেগম, মোছাম্মত রুবি বেগম ও শিল্পী বেগম এবং সাধারণ কাউন্সিলর হাফিজ এমাদ আহমদ, ছয়ফুল আলম ঝুনু, আকবর হোসেন, মো. আবুল কাশেম, সাইফুল ইসলাম, এহসানুল ইসলাম, মিছবাহ উদ্দিন, এনাম হোসেন ও আব্দুর রহমান আফজল। তাঁদেরকে শপথবাক্য পাঠ করান বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন।

 

Developed by :