Sunday, 2 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




স্মৃতিস্তম্ভে বিভিন্ন সংগঠনের পুষ্পস্তবক অর্পণ

বিয়ানীবাজারে শহিদ মনু মিয়ার নামে ‘চত্বর কিংবা সড়ক’র নামকরণ দাবি

শহিদ মনু মিয়া স্মৃতি পরিষদের পুষ্পস্তবক অর্পণ

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম: বিয়ানীবাজারে ঐতিহাসিক ৭ জুন শহীদ মনু মিয়া দিবস পালিত হয়েছে। আজ যথাযোগ্য মর্যাদায় শহিদ মনু মিয়া স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে এ দিবস পালন করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে এবং ফ্রান্সের প্যারিসেও এবার শহিদ মনু মিয়া দিবস পালন করা হবে। সভায় বক্তারা শহিদ মনু মিয়ার নামে পৌর এলাকায় একটি ‘চত্বর কিংবা সড়ক’র নামকরণের দাবি জানান।

মঙ্গলবার (০৭ জুন) দুপুর ১২ টায় বিয়ানীবাজার পৌর এলাকার নয়াগ্রামে স্থাপিত শহিদ মনু মিয়া স্মৃতিস্তম্ভে বিভিন্ন সংগঠন পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পরে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে শিক্ষক, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও এলাকার বিশিষ্টজন উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, শহিদ মনু মিয়া স্মৃতি পরিষদের সহ সভাপতি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ মজির উদ্দিন আনসারের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব শিক্ষক-সাংবাদিক খালেদ জাফরীর পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ, বিয়ানীবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক জিয়া উদ্দিন আহমদ, শেখ ওয়াহিদুর রহমান একাডেমির অধ্যক্ষ জহিরুল ইসলাম চৌধুরী, কবি ওয়ালী মাহমুদ, বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এবং পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুছ টিটু, সাংবাদিক আবদুল ওয়াদুদ, আহমদ ফয়সাল, অধ্যাপক ফয়সল আহমদ, শিক্ষক বিধুভূষণ বৈদ্য প্রমুখ। এ সময় শহিদ মনু মিয়ার পরিবারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন ফখরুল হুদা খান মামুন।

নয়াগ্রাম নবীন সংঘের সদস্যদের পুষ্পস্তবক অর্পণ

এর আগে, স্মৃতিস্তম্ভে শহিদ মনু মিয়া স্মৃতি পরিষদ, নয়াগ্রাম নবীন সংঘসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পরে বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ‘প্রতিবাদী’ মেয়র প্রার্থী জিএস ফারুকুল হক।

শহিদ মনু মিয়া স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করছেন জিএস ফারুকুল হক

সভা শেষে শহিদ মনু মিয়ার রূহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন সামাজিক ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব সাহাব উদ্দিন মাওলা।

উল্লেখ্য, বাঙালির মুক্তির সনদ তথা স্বাধিকার আন্দোলনের প্রথম শহিদ মনু মিয়া। ১৯৬৬ সালের ঐদিনে তিনি ঢাকার তেজগাঁও এ হরতাল চলাকালে পুলিশের গুলিতে শাহাদত বরণ করেন। তাঁর বাড়ি বিয়ানীবাজার পৌর এলাকার নয়াগ্রামে।

তথ্যমতে, ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের উদ্যোগে সাড়ে ৬ লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে মনু মিয়ার বসতবাড়িতে একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়। এ সময়ে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাংবাদিক মিসবাহ উদ্দিনের সম্পাদনায় ‘৬ দফা এবং মনু মিয়ার আত্মদান’ নামে একটি স্মারকগ্রন্থও প্রকাশিত হয়।

 

Developed by :