Thursday, 6 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচন: ১২ মেয়র প্রার্থীসহ ৭২ জনের মনোনয়ন দাখিল

অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিব : রিটার্নিং অফিসার আলমগীর হোসেন

১২ জন মেয়র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম: বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মোট ১২ জন। এরমধ্যে মঙ্গলবার শেষ দিনে ১০ জন ও আগেরদিন সোমবার ২ জন। এছাড়া কাউন্সিলর পদে জমা দিয়েছেন মোট ৫০ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১০ জন।

সবমিলিয়ে পৌর নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মোট ৭২ জন।

মঙ্গলবার সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত বিয়ানীবাজার উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে রিটার্নিং অফিসারের কাছে প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ সময় প্রার্থীদের কর্মী সমর্থকদের পদভারে উপজেলা প্রাঙ্গণ মুখরিত হয়ে উঠে।

মেয়র প্রার্থী তফজ্জুল হোসেন

মেয়র প্রার্থী এডভোকেট আবুল কাশেম

জানা যায়, মমঙ্গলবার মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. আব্দুস শুকুর, জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের মো. সুনাম উদ্দিন, কমিউনিস্ট পার্টি মনোনীত এডভোকেট আবুল কাশেম, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জিএস ফারুকুল হক, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক পৌর প্রশাসক তফজ্জুল হোসেন, বিএনপি ঘরাণার আবু নাসের পিন্টু, মাসুক আহমদ, আব্দুস সবুর, আহবাব হোসেন সাজু, আব্দুস সামাদ আজাদ।

এর আগে গতকাল সোমবার মনোনয়নপত্র জমা দেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হাজি আব্দুল কুদ্দুস টিটু ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ অজি উদ্দিন।

মনোনয়ন জমা দেয়া শেষে বর্তমান মেয়র আব্দুস শুকুর বলেন, বিগত পাঁচ বছরে আমি পৌরসভার দৃশ্যমান অনেক উন্নয়ন কাজ করেছি। চেয়েছি একটি মডেল পৌরসভা গঠন। তিনি পৌরসভার অসমাপ্ত কাজ এগিয়ে নিতে নৌকা প্রতীকে আবারও ভোট প্রার্থনা করেছেন।

সাবেক পৌর প্রশাসক তফজ্জুল হোসেন বলেন, আমি দীর্ঘ দিন জনগণের সেবক হিসেবে নিয়োজিত ছিলাম। যখন পৌর প্রশাসক ছিলাম, তখন কেউ আমার কাছ থেকে বিমুখ হয়ে ফিরে যাননি। আমি অতীতের ন্যায় শেষ বয়সে জনসেবা করে মরতে চাই।

বিয়ানীবাজারে মেয়র পদে রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জিএস ফারুকুল হক।

জিএস ফারুকুল হক বলেন, স্বজনপ্রীতি ও দুর্নীতিমুক্ত পৌরসভা গঠনে মেয়র হতে চাই। নির্বাচিত হলে আলোচিত সকল অনিয়মের জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করব । ত্রুটি ধরা পড়লে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে। এতে কাউকে বিন্দুমাত্র ছাড় দেয়া হবে না।

সার্বিক বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন বলেন, প্রার্থীরা আচরণবিধি মেনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আশা করি এভাবে নির্বাচনী কাজে সবাই সাহায্য করবেন। তিনি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে বদ্ধপরিকর বলেও মন্তব্য করেন।

উল্লেখ্য, বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই আগামীকাল ১৯ মে বৃহস্পতিবার, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষদিন ২৬ মে। এছাড়া প্রতীক বরাদ্দ করা হবে ২৭ মে। আগামী ১৫ জুন ইভিএম এর মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

 

Developed by :