Thursday, 6 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




সাবেক এমপি ড. সৈয়দ মকবুল হোসেন লেচু মিয়া’র ইন্তেকাল, জানাজা কাল

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম: সিলেট-৬ (গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার) আসনের দুইবারের সাবেক সংসদ সদস্য ড. সৈয়দ মকবুল হোসেন ওরফে লেচু মিয়া ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।

বুধবার (১৬ মার্চ) রাত পৌনে দশটার দিকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মৃত্যুকালে তাঁর বয়স ছিল ৭৬ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মরহুমের প্রথম জানাজার নামাজ বৃহস্পতিবার বাদ জোহর ঢাকা ট্যাম্পাকো প্রাঙ্গণে এবং দ্বিতীয় জানাজার নামাজ বাদ আছর বনানীতে অনুষ্ঠিত হবে। পরে তাঁর লাশ বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

ড. মকবুলের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন সাপ্তাহিক বিয়ানীবাজার বার্তা পত্রিকার সম্পাদক ছাদেক আহমদ আজাদ।

এক শোকবার্তায় তিনি মরহুমের রূহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।

জানা যায়, ড. সৈয়দ মকবুল হোসেন লেচু মিয়ার জন্ম ১৯৪৬ সালে সিলেটের গোলাপগঞ্জের সুন্দিসাইল গ্রামে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে বিএ এবং এমএ পাস করেন। পরবর্তীতে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন।

একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে তিনি টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৫ সালে তিনি উপসচিব পদ থেকে পদত্যাগ করে ব্যবসা শুরু করেন। তার জন্মস্থান সুন্দিসাইল গ্রামে প্রতিষ্ঠাতা করেন ড. সৈয়দ মকবুল হোসেন উচ্চ বিদ্যালয় ও ডিগ্রি কলেজ। এছাড়া বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা তিনি।

ধনকুবের এ ব্যবসায়ী ১৯৮৬ সালের তৃতীয় ও ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সিলেট-৬ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৮৮ সালে তিনি এরশাদ সরকারের বিরোধিতা করে সংসদ থেকে পদত্যাগ করেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে তিনি জড়িত থাকলেও ১৯৯১ সালের পর যোগ দেন বিএনপিতে। ১৯৯১ সালের পঞ্চম ও ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এবং ১৯৯৬ সালের সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে একই আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন।

 

Developed by :