Wednesday, 28 September, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




সিলেটে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস পালিত

সিলেট: সিলেটে নানা আয়োজনে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস-২০২২ উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বুধবার সকালে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট সিলেটের সম্মেলন কক্ষে এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কর্ণেল জিএইচএম সেলিম হাসান, বিজিবিএম, পিএসসি, জি+, সেক্টর কমান্ডার, বর্ডারগার্ড বাংলাদেশ, সেক্টর সদর দপ্তর, সিলেট বলেন, স্বর্ণ, মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান রোধে বিশেষ করে সীমান্তে, বিমানবন্দর ও সমুদ্রবন্দরসহ বিভিন্ন শুল্ক স্টেশনে কাস্টমসের সাথে বিজিবি কাজ করছে দেশ ও জনগণের নিরাপত্তায়। শুধু তা-ই নয়; রাজস্ব আদায়েও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন কাস্টমস এবং বিজিবিসহ সকল অংশীজন।

কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট সিলেটের কমিশনার জনাব মোহাম্মদ আহসানুল হকের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন- কর অঞ্চল, সিলেটের কর কমিশনার জনাব মোঃ সাইফুল হক; দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি জনাব তাহমিন আহমদ এবং সিলেট উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি জনাব স্বর্ণলতা রায়।

সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট সিলেটের অতিরিক্ত কমিশনার জনাব মুহাম্মদ রাশেদুল আলম।

“Scaling Up Customs Digital Transformation By Embracing A Data Culture And Building A Data Ecosystem’’ অর্থাৎ “তথ্য-সংস্কৃতি বিকাশ এবং তথ্য-ইকোসিস্টেম বিনির্মাণের মাধ্যমে ডিজিটাল কাস্টমসের সম্প্রসারণ।’’ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে এবারের আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস উদযাপন করা হচ্ছে।

মূল প্রবন্ধে উপস্থাপনে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট সিলেটের অতিরিক্ত কমিশনার জনাব মুহাম্মদ রাশেদুল আলম বলেন, বিশ্ব বাণিজ্যের উন্নয়ন সহজীকরণ, সরলীকরণ, উদারীকরণ এবং কার্যকর সীমান্ত ব্যবস্থাপনার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে এই দিবস পালন করা হয় এবং 1953 সালের 26 শে জানুয়ারী 17টি প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য দেশ নিয়ে বেলজিয়ামের ব্রাসেলস শহরে World Customs Organization এর আদি প্রতিষ্ঠান Customs Co-operative Council(CCC) এর প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। এই দিনটিকে স্মরণীয় রাখতেই ২০০৯ সাল থেকে ওয়ার্ল্ড কাস্টমস অর্গানাইজেশন (ডব্লিউসিও) ২৬ জানুয়ারিকে আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। প্রতি বছর ২৬ জানুয়ারি ওয়ার্ল্ড কাস্টমস অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউসিও) সদস্যভুক্ত ১৭৯টি দেশে একযোগে এই দিবসটি পালন করা হয়। এরপর থেকেই বাংলাদেশও সংস্থাটির সদস্য হিসেবে দিবসটি পালন করছে।

সেমিনারে বক্তারা বলেন, কাস্টমস ব্যবস্থাপনায় তথ্যপ্রযুক্তির সফল প্রয়োগ, আধুনিক ও স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থাপনা, উদ্ভাবনী পদ্ধতির প্রয়োগ এবং আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ অংশীজনের পারস্পরিক মিথষ্ক্রিয়ায় বৈশ্বিক করোনার প্রভাবকে মোকাবেলা করে শক্তিশালী অর্থনৈতিক কাঠামো গঠনে কাস্টমস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। কাস্টমস তথা রাজস্ব বিভাগ তার সামগ্রিক প্রচেষ্টায় অর্থনীতির ক্ষতি পুষিয়ে নতুনভাবে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ও বৃদ্ধি এবং টিকে থাকার লড়াইয়ের মাধ্যমে টেকসই বিতরণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করবে।

বক্তারা আরও বলেন, মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও দেশে কাস্টমসের কার্যক্রম বন্ধ ছিল না। এ সময়ে ‘ফ্রন্টলাইনার’ হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে কাস্টমসের কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

সভাপতির বক্তব্যে মোহাম্মদ আহসানুল হক, কমিশনার, কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট সিলেট বলেন, বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে কাস্টমসের সাম্প্রতিক বিভিন্ন উদ্যোগ ও প্রকল্প সম্পর্কে তুলে ধরেন এবং সভায় উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

 

Developed by :