Friday, 21 January, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




অন্য দেশকে চাপে রাখাই আমেরিকার রাজনীতি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সিলেট: গণতন্ত্র ও সুশাসনের কথা বলে বিভিন্ন দেশকে চাপে রাখতে চাওয়ায় আমেরিকার রাজনীতি বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি আরও বলেন, কে দাওয়াত দিল না দিল তাতে কিছু আসে যায় না, আমাদের গণতন্ত্র আমাদেরই ঠিক করতে হবে। অন্য কেউ ঠিক করে দেবে না।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সকালে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নবনির্মিত কার্গো টার্মিনাল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সকাল ৯টার দিকে সিলেটে পৌঁছান পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন। বিমানবন্দরের নেমেই নির্মাণাধীন নতুন কার্গো টার্মিনাল ঘুরে দেখেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্র সম্মেলনে বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। এ নিয়ে দেশে নানা ধরনের কথাবার্তা চলছে। বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে রাজি নন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, কে দাওয়াত দিল না দিল, এগুলো সেকেন্ড বিষয়। গণতন্ত্র অন্য কেউ শেখাবে না, আপনার দেশের লোকই শেখাবে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা অনেক বছরে খুব স্থিতিশীল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছি। সব দেশেই কিছু ব্যত্যয় আছে, উইকনেস (দুর্বলতা) আছে। এই দুর্বলতা সামনে নিয়ে আমরা দিনে দিনে যাতে আরও ভালো করতে পারি, সেটি আমরাই ঠিক করব। অন্যের ফরমায়েশে আপনার ভালো হয় না। এগুলো শুধু মুখে বললেই হবে না। এ জন্য মন মানসিকতা দরকার, আমাদের দেশে সহনশীলতা আরও বাড়াতে হবে। এটার একটু অভাব পরিলক্ষিত হয়।

তিনি বলেন, এ দেশে এক সময় গণতন্ত্র ছিল না, দেশের মানুষই গণতন্ত্র এনেছে। আমাদেরই চেষ্টা করতে হবে। আমেরিকার গণতন্ত্রের নমুনা তো দেখেছি। গণতন্ত্র সম্মেলনে কোন কোন দেশকে দাওয়াত দিয়েছে তাও দেখেছি। কাকে দাওয়াত দেবে এটাও তাদের বিষয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের সহনশীলতা বাড়াতে হবে। একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বাড়াতে হবে। প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বলে থাকেন যে, একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বাড়াতে হবে। আমরা সবাই এ দেশেরই লোক। একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বাড়লে, আমাদের সহিষ্ণুতা বাড়াতে হবে।

 




 

Developed by :