Tuesday, 30 November, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |




‘ধর্ষকদের মদদদাতা ও ব্যবসায়ী দিয়ে গঠিত কমিটি বিলুপ্ত না হলে কঠোর আন্দোলন’

সিলেট: সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের নতুন কমিটি বাতিল না হওয়া পর্যন্ত লাগাতার বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছে জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের একাংশ।

এরই অংশ হিসেবে গতকাল শনিবার বিকেলে নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে বিপুল সংখ্যক বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী মানববন্ধন করেন।

এ সময় ছাত্রলীগ নেতারা, ধর্ষকদের মদদদাতা সভাপতি ও ব্যবসায়ী সাধারণ সম্পাদক দিয়ে গঠিত নতুন কমিটি শিগগির বিলুপ্ত না করলে কঠোর আন্দোলনের হুমকি প্রদান করেন।

মানববন্ধনে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর হাতে প্রদর্শিত বিভিন্ন প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল- ‘বিদেশি নাগরিকের হাতে ছাত্রলীগের দায়িত্ব কেন? জবাই চাই।’ ‘তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসীর হাতে ছাত্রলীগের গুরুদায়িত্ব, মানি না মানবো না।’ ‘ধর্ষকদের মদদদাতা ছাত্রলীগের সভাপতি, প্রিয়নেত্রী বিচার চাই।’ ‘১ কোটি ২০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে সিলেটের ছাত্রলীগ নিহত।’ ‘সিয়াম ফ্যাশনের স্বত্ত্বাধিকারী ছাত্রলীগের সেক্রেটারী মানি না, মানবো না।’

মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, ‘একটানা কয়েক বছর অপেক্ষা করে আমাদের প্রত্যাশা ছিল সিলেটে এমন এক নেতৃত্ব আসবে, সারা বাংলাদেশ তা অনুসরণ করবে। কিন্তু ত্যাগী নেতাকর্মীর প্রত্যাশা টাকার কাছে মারা গেছে। টাকা দিয়ে যদি পদ কেনাবেচা হয়, তাহলে এই কমিটি চাঁদাবাজি ছাড়া তো কিছুই করবে না।’

বক্তারা আরো বলেন, ঘোষিত কমিটি অযোগ্য। একজন ধর্ষকদের নেতা, আরেকজন ব্যবসায়ী। তাদেরকে বাদ দিয়ে অবিলম্বে যোগ্য, পরীক্ষিত ও মাঠপর্যায়ের ত্যাগী নেতাদের দিয়ে কমিটি গঠনের দাবি জানান তারা।

সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ নেতা আশরাফুল ইসলাম বাপ্পির সভাপতিত্বে ও জেলা ছাত্রলীগ নেতা সৌরভ জায়গীরদারের পরিচালনায় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ নেতা মুশফিকুর রহমান রুমু, শহিদুল ইসলাম সৌমিক, জেলা ছাত্রলীগ নেতা আশফাক আহমদ মাসুদ, জঙ্গীনুর রহমান জীবান, মুহিবুর রহমান, দীপরাজ দাস প্রমুখ।

 




 

Developed by :