Wednesday, 24 February, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




টিকা নিলেন না সাংসদ হাফিজ

বার্তা ডেস্ক: প্রথম সংসদ সদস্য করোনার টিকা নেওয়ার কথা ছিলো সিলেট-৫ আসনের সাংসদ হাফিজ আহমেদ মজুমদারের। টিকা নিতে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালেও গিয়েছিলেন তিনি। তবে শেষ মুহূর্তে টিকা না নিয়েই ফিরে যান এই সাংসদ।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) দেশের প্রথম সংসদ সদস্য হিসেবে হাফিজ আহমেদ মজুমদার টিকা নিতে আসেন কুর্মিটোলা হাসপাতালে। টিকা নেবেন বলে নিজেই গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। তবে শেষ পর্যন্ত তার আর টিকা নেওয়া হয়নি। ‘শরীর ভালো নয়’ জানিয়ে টিকা নেননি হাফিজ।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে টিকা প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু হয় বুধবার বিকেলে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ টিকা প্রয়োগ কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধনের পর পাঁচজনের দেহে টিকা টিকা প্রয়োগ প্রত্যক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রথম পাঁচ জনকে টিকা দেওয়া শেষে তালিকায় থাকা অন্যদের দেহেও এর প্রয়োগ শুরু করেন কুর্মিটোলা হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা। তখন হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যান তালিকার ১৮ নম্বরে নাম থাকা সংসদ সদস্য হাফিজ আহমেদ মজুমদার।

টিকা না নিয়ে চলে যাওয়ার কারণ সম্পর্কে হাফিজ আহমেদ মজুমদার বলেন, ‘টিকা নেওয়ার জন্য স্বেচ্ছায় নাম নিবন্ধন করেছিলাম। কিন্তু শরীরটা ভালো লাগছে না। তাই চলে যাচ্ছি।’

প্রসঙ্গত, দেশে প্রথম ব্যক্তি হিসেবে টিকা নেন সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু বেরুনিকা কস্তা। তিনি কুর্মিটোলা হাসপাতালের ডায়ালাইসিস ইউনিটের ইনচার্জ। এরপর দ্বিতীয় টিকা নেন ডা. আহমেদ লুৎফুল মোবেন, তৃতীয় টিকা নেন স্বাস্থ্যের অতিরিক্ত ডিজি নাসিমা সুলতানা, চতুর্থ টিকা নেন পুলিশ সদস্য দিদারুল ইসলাম, পঞ্চম টিকা নেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ।

বুধবার আরও যারা টিকা নেন তারা হলেন- মাজেদুল ইসলাম, সানজিদা সুলতানা, আব্দুল হালিম, এনামুল হাসান, মো. হামজা, শাম্মী আকতার, ডা. আল মামুন শাহরিয়ার সরকার, ডা. ফরিদা ইয়াসমিন, ডা. আফরোজা জাহিন, ডা. অরূপ রতন চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. আবদুল কাদের খান, মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান, আব্দুর রহিম, কাজী জসিম উদ্দিন, মোশারফ হোসাইন, সাংবাদিক মাসুদ রায়হান পলাশ, আল- মাসুম মোল্লা, আমিরুল মোমেনিন, মিস মুন্নি খাতুন, আশিফুল ইসলাম ও দেওয়ান হেমায়েত হোসাইন।

 




সর্বশেষ সংবাদ

Developed by :