Monday, 1 March, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




বিয়েপাগল’ স্বামীর ‘বিশেষ অঙ্গ’ কাটলেন স্ত্রী

বার্তা ডেস্ক: একের পর এক বিয়ে করায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছেন প্রথম স্ত্রী। গত রোববার (২৪ জানুয়ারি) ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভার কাকচর মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) ওই ব্যক্তিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, গত প্রায় এক বছর ধরে ওই মহল্লার আরশাদ আলীর বাসায় ভাড়া থাকেন বেগম আক্তার (২৫) নামে এক নারী। তার স্বামী সাদ্দাম হোসেন (৩২) ঢাকার একটি কোম্পানিতে চাকরি করেন। এই কারণে কয়েক মাস পরপর স্ত্রীর কাছে আসেন। এরমধ্যে প্রায় তিন মাস পার হলেও স্বামী না আসায় খোঁজ খবর নিয়ে দেখেন, স্বামী সাদ্দাম গাজীপুরে ও শ্রীপুরে দুই নারীর সাথে বসবাস করেন। তাছাড়া নিজের এলাকা ভৈরবেও রয়েছে তার আরও দুই স্ত্রী। তাদের সাথে থাকায় তার কাছে আসতেন অনেক দিন পর।
গত ২২ জানুয়ারি স্বামী সাদ্দাম হোসেন নান্দাইলে আসে তার কাছে। আসার পর দুই দিন পার হলেও কিছু বলেননি তিনি। এ অবস্থায় গত রোববার সকালে বসত ঘরে শুয়ে দরজা বন্ধ করে দেন স্ত্রী। এক তাকে বিয়ে করার পরও কেনো এতগুলো বিয়ে করলো জানতে চাইলে অন্য বিয়ের কথা অস্বীকার করেন স্বামী সাদ্দাম। এতে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে ব্লেড দিয়ে আচমকা স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেন। তখন লজ্জায় চিৎকার না দিয়ে বা কাউকে না জানিয়ে নিজেই নান্দাইল সদর হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ওই ব্যক্তির বিশেষাঙ্গে সাতটি সেলাই দেয়া হয়েছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি থাকতে বলা হলেও তিনি গোপনে সেখান থেকে চলে যান। গোপনে অন্য স্থানে চিকিৎসা নিতে থাকলে তার শারীরিক অবনতি হয়।

এ অবস্থায় ফের তিনি মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাসপাতালে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

নন্দাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। বিষয় সম্পর্কে খোঁজ নেয়ার জন্য পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

 

Developed by :