Wednesday, 24 February, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১২ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




পাঁচ মাসে ৩১ বার করোনা পরীক্ষা, প্রতিবারই পজিটিভ!

বার্তা ডেস্ক: পাঁচ মাসে ৩১ বার করোনা পরীক্ষা করেছেন এক মহিলা। প্রতিবারই তার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ এসেছে। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই অবাক হয়েছেন অনেকেই।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। এ খবরে রীতিমত চিকিৎসকরাও হতবাক হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থানের ভরতপুর এলাকায়।

গেল বছর ২৮ আগস্ট প্রথমবার করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল রাজস্থানের বাসিন্দা এই মহিলার। সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসায় তাকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল কোয়ারেন্টাইনে। কিন্তু তারপর থেকে বিগত পাঁচ মাসে আরও ৩১ বার তার করোনা পরীক্ষা হয়। আর আশ্চর্যের বিষয়, প্রতিবারই সেই রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে জানা গিয়েছে, সারদা নামে ওই মহিলা রাজস্থানের ভরতপুরের বাঝেরা গ্রামের বাসিন্দা। করোনা পজিটিভ হওয়ার পরই তাকে ভরতপুরের আরবিএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এরপর ওই মহিলার শারীরিক এবং মানসিক পরিস্থিতি দেখার পর একজনকে সবসময় তার সঙ্গে রাখার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়। পরবর্তীতে অবশ্য কোয়ারেন্টাইনের জন্য তাকে ‘আপনা ঘর আশ্রম’-এ পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

ওই আশ্রমে থাকার সময় পরপর ৩১ বার সারদার করোনা পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু সবাইকে অবাক করে প্রত্যেকবারই করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। যা দেখার পর সবারই চক্ষু চড়কগাছ। এরপর ওই মহিলাকে পৃথক আইসোলেশনে রাখা হয়। কিন্তু তাতেও সুরাহা হয়নি।

হোমিওপ্যাথি, আর্য়ুবেদিক, অ্যালোপেথিক সমস্ত রকম ওষুধ প্রয়োগ করেও কোন লাভ হয়নি। এই সময়টাতে কখনই তার স্বাস্থ্যের কোন অবনতিও হয়নি, শরীরে কোন দুর্বলতাও দেখা যায়নি। আর তাতে আরও অবাক চিকিৎসকরা।

ইতিমধ্যে ভরতপুর এলাকার জয়পুরের এসএমএস হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছে আশ্রম কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি জানার পর সেখানকার চিকিৎসকরাও অবাক হয়ে যান। ওই মহিলাকে আপাতত জয়পুরের হাসপাতালে পাঠানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সেখানেই তার চিকিৎসা হবে বলে ভারতীয় গণমাধ্যমে জানা গেছে।

ভরতপুরে এই মুহূর্তে নতুন করে কোন করোনা আক্রান্ত নেই। কিন্তু একজন মহিলার বার বার এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর রীতিমতো উদ্বেগ বাড়িয়েছে প্রশাসনের। চিকিৎসকদেরও চিন্তা বেড়ে গেছে।

 




সর্বশেষ সংবাদ

Developed by :