Thursday, 25 February, 2021 খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




সিলেটের ৭ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ ৪, বিএনপি ২, বিদ্রোহী ১

সিলেট: সিলেট বিভাগের ৭টি পৌরসভায় আজ শনিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফল বলছে, এসব পৌরসভার মধ্যে ৪টিতে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগদলীয় মেয়র প্রার্থীরা। অন্যদিকে বিএনপির দুই প্রার্থী জয় পেয়েছেন। অপর পৌরসভায় বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

আজ শনিবার সিলেট বিভাগের ৭টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ পৌরসভাগুলো হলো- সুনামগঞ্জ সদর পৌরসভা, ছাতক, জগন্নাথপুর, মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ, কুলাউড়া, নবীগঞ্জ ও মাধবপুর পৌরসভা।

এসব পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, স্বতন্ত্র মিলিয়ে ২৫ জন মেয়র প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এছাড়া সাধারণ ওয়ার্ডে ২৬৩ জন প্রার্থী ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৭৯ জন নারী প্রার্থী কাউন্সিলর পদে লড়ছেন। সবমিলিয়ে ৩৬৭ জন প্রার্থী ছিলেন নির্বাচনী ময়দানে।

নির্বাচনে সুনামগঞ্জ সদর পৌরসভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাদের বখত নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ২১ হাজার ৬৬৯ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপির মোর্শেদ আলম পেয়েছেন ৫ হাজার ৮৮৫ ভোট।

ছাতকে টানা চতুর্থবারের মতো বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের আবুল কালাম চৌধুরী। নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১২ হাজার ৮২৩ ভোট। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) মনোনীত প্রার্থী রাশিদা আহমদ ন্যান্সি পেয়েছেন ৭ হাজার ৯০৮ ভোট।

জগন্নাথপুরে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী আক্তারুজ্জামান আক্তার চামচ প্রতীকে ৮ হাজার ৩৭৮টি ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী মিজানুর রশীদ নৌকা প্রতীকে ৮ হাজার ১৮টি ভোট পেয়েছেন।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. জুয়েল আহমদ (নৌকা) পেয়েছেন ৫ হাজার ২৫৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র প্রার্থী) মো. হেলাল মিয়া (জগ প্রতীক) ২ হাজার ৮০৬ ভোট পেয়েছেন। এছাড়া আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র প্রার্থী) মো. আনোয়ার হোসেন নারিকেল গাছ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৭৮৭ ভোট ও বিএনপির প্রার্থী মোহাম্মদ আবুল হোসেন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৩০১ ভোট।

কুলাউড়ায় আওয়ামী লীগের অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪ হাজার ৮৩৮ ভোট। স্বতন্ত্র প্রার্থী শাজান মিয়া জগ প্রতীক নিয়ে ৪ হাজার ৬৮৫ ভোট পেয়েছেন। ১৫৩ ভোট বেশি পেয়ে জয়ী হয়েছেন সিপার। এছাড়া আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. শফি আলম ইউনুছ নারিকেল গাছ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ হাজার ৯৯৪ ভোট। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপির প্রার্থী কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ ১ হাজার ৭৭৬ ভোট পেয়েছেন।

হবিগঞ্জের মাধবপুরে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর চেয়ে ৮ গুণ বেশি ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির হাবিবুর রহমান মানিক। ধানের শীষ প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৫ হাজার ৩১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী পংকজ সাহা নারিকেল গাছ প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৪ হাজার ১৮৫টি। এছাড়া শাহ মো. মুসলিম (জগ প্রতীক) পেয়েছেন ৩ হাজার ৪৯ ভোট এবং শ্রীধাম দাশ গুপ্ত নৌকা প্রতীক নিয়ে ৫৬৮ ভোট পেয়েছেন।

নবীগঞ্জ পৌরসভায় টানা দ্বিতীয় মেয়াদে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী ছাবির আহমদ চৌধুরী। ধানের শীষ প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৫ হাজার ৭৪৯ ভোট। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী গোলাম রসুল রাহেল চৌধুরী নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ৪৮৫ ভোট।

 




সর্বশেষ সংবাদ

Developed by :