Monday, 6 July, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ২২ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




মধুশহীদ সপ্রাবি’র প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ : তদন্ত কমিটি গঠন

সিলেট: নগরীর মধুশহীদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সেলিনা বেগমের বিভিন্ন অনিয়মের তদন্ত ও তাকে অন্যত্র বদলীর দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী। এর প্রেক্ষিতে জলা শিক্ষা অফিস তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

গত ২৩ জুন মঙ্গলবার প্রধান শিক্ষক সেলিনা বেগমের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা, অনিয়ম, দুর্নীতিসহ বিভিন্ন অনিয়মতান্ত্রিক কার্যক্রমের লিখিতভাবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন এলাকাবাসী। এতে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করেছেন।

সিলেট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবরে প্রেরিত অভিযোগে এলাকাবাসী উল্লেখ করেন, সেলিনা বেগম প্রধান শিক্ষিকা হওয়ার পর থেকেই নিয়মনীতির অনুসরণ না করে নিজের ইচ্ছেমতো বিদ্যালয় পরিচালনা করছেন। এমনকি তিনি সময় মতো সভা আহ্বান করেন না এবং অভিভাবক ও বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন। বিদ্যালয়ের ফান্ডের সঠিক হিসাব না দেওয়াসহ বেশক’টি অভিযোগের কথা উল্লেখ করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

এছাড়াও স্কুলের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরীকে নিজের ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার ও তার অনুপস্থিতিতে স্কুলের তালা ভেঙ্গে কম্পিউটারসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র চুরি হয়েছে।

এসব ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রধান শিক্ষিকা সেলিনা বেগমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং তাকে অন্যত্র বদলী করে নতুন প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দিতে এলাকাবাসী প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান।

অভিযোগপত্রে স্বাক্ষর করেছেন, মধুশহীদ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি হাজী মল্লিক চৌধুরী ও সেক্রেটারি মো. সাজ্জাদুর রহমান, আলা উদ্দিন বাদশা, কামাল আহমদ, এম এ আজিজ, আব্দুর রহমান, মো. আবুল হান্নানসহ শতাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তি অভিযোগপত্রে স্বাক্ষর করেছেন। পাশাপাশি স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর রকিবুল ইসলাম ঝলক বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের কাছে সুপারিশ করেছেন।

এ ব্যাপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. বায়েজীদ খান বলেন, প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেয়ে শিক্ষা অফিস থেকে একটি ল তদন্ত কমিটি গঠন করে দিয়েছি। এ কমিটির রিপোর্টের আলোকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

Developed by :