Thursday, 9 April, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




বিয়ানীবাজারে কিশোর গ্যাং প্রকাশ্যে! এসএসসি পরীক্ষার্থী আহত

বিয়ানীবাজার: বিয়ানীবাজারে এসএসসি পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে এক পরীক্ষার্থীকে আহত করে জানান দিল কিশোর গ্যাং! এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর দেড়টার দিকে পৌরশহরের পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে গ্যাং হামলার শিকার হয় এসএসসি পরীক্ষার্থী সুহেল আহমদ। বর্তমানে সে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত শিক্ষার্থী সুহেল আহমদ বিয়ানীবাজার জামেয়া ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় হতে মানবিক বিভাগে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। সে উপজেলার মাথিউরা ইউনিয়নের পূর্বপার এলাকার ওমান প্রবাসী নাজিম উদ্দিনের ছেলে।

আহত পরীক্ষার্থী, তার স্বজন ও এসএসি পরীক্ষা কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, বিয়ানী-১ এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের ভেন্যু খলিল চৌধুরী আদর্শ নিকেতনে পরীক্ষা দিচ্ছেন সুহেল আহমদ। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে সুজন-অমিতসহ আরো ২-৩ জন কিশোর তাকে জোরপূর্বক পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নিয়ে এসে জিআই পাইপ দিয়ে এলোপাতাড়ি প্রহার করে। তাদের প্রহারে সুহেল মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময়  প্রত্যেকদর্শীরা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে সুহেল আহমদের স্বজনরা ঘটনাস্থলে পৌছে তাকে উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সুহেল বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত পরীক্ষার্থী সুহেল আহমদ বলে, সুজন ও অমিতসহ আরো ২-৩ জন তাকে ডেকে নিয়ে জিআই পাইপ দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ফেলে চলে যায়। হামলাকারী সুজন বিয়ানীবাজার জামেয়া ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও অমিত পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী বলে জানায় সে।

বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাঃ আবু ইসহাক আজাদ বলেন, আহত পরিক্ষার্থী সুহেল আহমদের শরীরের বিভিন্ন স্থান ফুলে নীল হয়ে আছে। তার শরীরে প্রচন্ড জ্বরও রয়েছে। শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে, তার চিকিৎসা চলছে।

এদিকে, আহত পরীক্ষার্থী সুহেল আহমদের স্বজনরা ঘটনাটি বিয়ানী-১ এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগত করেছেন। এ ঘটনায় দুই জনকে আসামি করে বিয়ানীবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের  করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বিয়ানী-১ এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব ও পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হাছিব জীবন বলেন, আহত পরীক্ষার্থীর স্বজনদের মাধ্যমে ঘটনাটা শুনেছি।

তিনি বলেন, বিষয়টি তাৎক্ষণিক বিয়ানীবাজার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে জানিয়েছি। এ ব্যাপারে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

 

Developed by :