Saturday, 26 September, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




বিয়ানীবাজারে নিখোঁজের পর উদ্ধার ব্যবসায়ী আশংকামুক্ত নন

সিলেট: বিয়ানীবাজারে এক মৎস্য ব্যবসায়ীকে নিখোঁজের ৪ দিন পর মুমুর্ষ অবস্থায় পাওয়া গেছে।

গতকাল শুক্রবার বেলা দু’টায় কাকরদিয়া আলগাট্টার একটি পুকুর পাড়ের ঝোঁপঝাড়ে থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধ রইছ আলীকে মুমুর্ষ অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থায় এখনো আশংকামুক্ত নয় বলে জানা গেছে।

জানা যায়, কুড়ারবাজার ইউনিয়নের বৈরাগীবাজার খশির চাতল গ্রামের ক্ষুদ্র মৎস্য ব্যবসায়ী রইছ (৬৩) আলী গত সোমবার নিখোঁজ হন। অনেক খোঁজাখুজি করে তাকে পাওয়া না গেলে পরদিন মঙ্গলবার বৃদ্ধের স্বজনরা বিয়ানীবাজার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এ নিয়ে গণমাধ্যমে সচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হয়।

একপর্যায়ে গতকাল শুক্রবার বেলা দু’টায় কাকরদিয়া আলগাট্টার একটি পুকুরপাড়ের জঙ্গলে অচেতন অবস্থায় বৃদ্ধকে দেখতে পান জনৈক এক মহিলা। তিনি বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল বাছিত মারুফকে অবহিত করেন। তিনি ঘটনাস্থলে এসে ঐ ব্যক্তিকে চিনতে পারেন এবং তাঁর স্বজনদের খবর দেন। এর পরপরই স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। সেখান থেকে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে গতকাল মধ্যরাতে তুতিউর রহমান তুতা বলেন, রইছ আলীকে মারধরের পর মৃত ভেবে দুষ্কৃতকারিরা পুকুরপাড়ের ঝোঁপে ফেলা যায়। তাঁর অবস্থা তেমন ভালো নয়, এখনো জ্ঞান এখনো ফিরেনি। তিনি বলেন, ওসমানী হাসপাতালের নিউরোলজী বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত¡াবধানে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহিদুল হক বলেন, রইছ আলী সুস্থ হলে পুরো ঘটনা জানা যাবে। এরপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

Developed by :