Monday, 13 July, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |




প্রতিবেশী স্কুলছাত্রের সঙ্গে স্ত্রীর পরকীয়ার কারণেই খুন হন উত্তম

গাইবান্ধা: প্রতিবেশী অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রের (১৫) সঙ্গে স্ত্রীর পরকীয়ার কারণেই খুন হন গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার উত্তম কুমার দেবনাথ। পরকীয়া প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে উত্তমের স্ত্রী (১৪) এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করে বলে তদন্তে উঠে এসেছে।

উত্তম কুমারকে হত্যা করতেই পরিকল্পনা করে তার স্ত্রীকে বেঁধে রাখার অভিনয় করা হয়। হত্যাকাণ্ডের আলামত হিসেবে পুকুর থেকে চারটি দেশীও অস্ত্র উদ্ধারের পর বেরিয়ে এসেছে এমন তথ্য।

এ ঘটনায় উত্তমের স্ত্রী (১৪) ও তার পরকীয়া প্রেমিক প্রতিবেশী অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রকে (১৫) আটক করেছে পুলিশ।

হাসপাতালে পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসাধীন উত্তমের স্ত্রীর দেয়া তথ্য অনুযায়ী পুলিশ বুধবার দিবাগত রাত ৪টার দিকে পরকীয়া প্রেমিককে গ্রেফতার করে। হত্যাকাণ্ডের আলামত উদ্ধারের স্বার্থে পুলিশ আসামি গ্রেফতারের বিষয়টি গোপন করেছিল।

murder

অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রের স্বীকারোক্তি মোতাবেক পুলিশ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে উত্তমের বাড়ির পেছনের পুকুর সেচে সন্ধ্যা ৬টার দিকে একটি কুড়াল, দুটি ছোট চাকু এবং একটি বেকি উদ্ধার করে।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহিল জামান জানান, প্রেমঘটিত কারণে হত্যাকাণ্ডটি সংঘটিত হয়েছে। বেশ কয়েকদিন ধরে উত্তমের স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের পর হত্যাকাণ্ডের রহস্য বের হয়ে আসে।

উল্লেখ্য, গত ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় স্ত্রীকে বেঁধে রেখে রাজমিস্ত্রি স্বামী উত্তম কুমার দেবনাথকে (৩০) তার ঘরে গলা কেটে হত্যা করা হয়। উত্তম ওই মহল্লার নিবারণ চন্দ্রের ছেলে।

 

Developed by :