Sunday, 19 January, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ৬ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




সকালে ঢাকায়, বিকেলে কুমিল্লার রাস্তায় মিলল যুবলীগ নেতার লাশ

কুমিল্লা: কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য ও মুরাদনগর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক খায়রুল আলম সাধন (৫০) দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (০৯ জানুয়ারি) বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার মোস্তফাপুর এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এরপর তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। নিহত সাধন মুরাদনগর উপজেলার ভুবনঘর গ্রামের মৃত সুলতান মাহমুদের ছেলে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে সদর দক্ষিণ উপজেলার মোস্তফাপুর এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে এক ব্যক্তির মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহের পকেটে পাওয়া জাতীয় পরিচয়পত্র দেখে পুলিশ নিশ্চিত হয়, নিহত ব্যক্তি কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য ও মুরাদনগর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক খায়রুল আলম সাধন।

নিহত সাধনের স্বজনদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার বনশ্রী এলাকার বাসা থেকে দুই লাখ টাকা নিয়ে খায়রুল আলম সাধন মুরাদনগরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। বিকেলে তার মরদেহ উদ্ধারের খবর পান স্বজনরা। সাধনের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী সাধনের মরদেহ দেখতে ভিড় করেন।

সদর দক্ষিণ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, স্থানীয়দের দেয়া খবরের ভিত্তিতে মোস্তফাপুর এলাকা থেকে যুবলীগ নেতা খায়রুল আলম সাধনের মরদেহ উদ্ধারের পর মর্গে পাঠানো হয়। তার বাম চোখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা অন্য কোনো স্থানে তাকে হত্যার পর এখানে মরদেহ ফেলে পালিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, কি কারণে বা কোন স্থানে তাকে খুন করা হয়েছে সে বিষয়ে তদন্ত চলছে। ঘটনার রহস্য উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে পুলিশের।

 





Developed by :