Tuesday, 12 November, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




কমলগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ইন্দো-বাংলা কালচারেল এক্সচেঞ্জ সমাপ্ত

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ইন্দো-বাংলা কালচারেল এক্সচেঞ্জ রোববার (০৩ নভেম্বর) রাত ১২টায় সমাপ্ত হয়েছে। বাংলাদেশ পোরৈ অপোকপা মরুপ এর আয়োজনে ও ইপসা এর সহযোগিতায় রোববার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের হোমেরজান ইমা লইমরেন সিদাবী মন্দিরে মঙ্গল প্রদ্বীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সুচনা করা হয়। ‘ট্রেডিশনাল মণিপুরী কালচারাল ইভিনিং’ শিরোনামে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে জওহরলাল নেহেরু মণিপুর ড্যান্স একাডেমি, ওয়ার্ল্ড থাং টা ফেডারেশন এবং লোক সংগীত শিল্পী দোনা নারেঙবাম ও লানসানা চানুসহ শিল্পীরা মণিপুরী সাংস্কৃতিক পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়। ১ম পর্বে মণিপুরীদের ইতিহাস ঐতিহ্য নিয়ে আলোচনা পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিন।

বাংলাদেশ পোরৈ অপোকপা মরুপ এর সভাপতি ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব কোংখাম নীলমনি সিংহের সভাপতিত্বে ও মনিভদ্র সিংহের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগীয় সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালক (উপ-সচিব) সন্দ্বীপ কুমার সিংহ, কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশেকুল হক, ইন্টারন্যাশনাল পিস এ- সোস্যাল এ্যাডভান্সমেন্ট, মণিপুর এর সভাপতি জয়চন্দ্র কনথৌজাম, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (শ্রীমঙ্গল সার্কেল) আশরাফুজ্জামান, সাধনা সংস্কৃতি কেন্দ্রের শিল্পনির্দেশক ও পরিচালক লুবনা মরিয়ম, কমলগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ আরিফুর রহমান, জওহরলাল নেহেরু মণিপুর ড্যান্স একাডেমির পরিচালক এল উপেন্দ্র শর্মা এবং আদমপুরস্থ মণিপুরী কালচারাল কমপ্লেক্স এর আহবায়ক জয়ন্ত কুমার সিংহ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পোরৈ অপোকপা মরুপ এর সাধারণ সম্পাদক ওইনাম পামহৈবা নির্মল ও য়োমনাম শাম্ভু রতন।

পরে সাংস্কৃতিক আয়োজনে অংশ নেন ভারতের মণিপুরের প্রখ্যাত শিল্পীরা। রাত ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলে।

কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চল হোমেরজান ইমা লইমরেন সিদাবী মন্দিরে ইন্দো-বাংলা কালচারেল এক্সচেঞ্জ অনুষ্ঠান উপলক্ষে এক মেলা বসেছিল। বিপুল সংখ্যক নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোর গভীর রাত পর্যন্ত অনুষ্ঠান উপভোগ করে।

 

Developed by :