Tuesday, 12 November, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




এবার মন্ত্রীদের পালা : ৩৩ মন্ত্রীর দুর্নীতির তথ্য প্রধানমন্ত্রীর টেবিলে

ডেস্ক রিপোর্ট: ২০০৯ সাল থেকে আওয়ামী লীগ দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পালন করছে। তিন মেয়াদে আওয়ামীলীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘুরিয়ে ফিরিয়ে মন্ত্রী বানিয়েছেন শতাধিক নেতাকে। এই শতাধিক আওয়ামী লীগ নেতার মধ্যে অন্তত ৩৩ জন বর্তমান ও সাবেক মন্ত্রী বিদেশে টাকা পাচার করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এই সমস্ত তথ্য-প্রমাণ এখন প্রধানমন্ত্রীর টেবিলে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে যে, সাম্প্রতিক শুদ্ধি অভিযানে সবার ব্যাপারেই তথ্য অনুসন্ধান করা হচ্ছে এবং তথ্য অনুসন্ধানে কেউই বাদ যাচ্ছেন না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আইনপ্রয়োগাকারী সংস্থার কয়েকজন উর্ধতন ব্যক্তির প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে এই তদন্ত পরিচালিত হচ্ছে। এর মধ্যেই তদন্তে জানা গেছে যে, অন্তত ৩৩ জন বর্তমান ও সাবেক মন্ত্রী বিদেশে সম্পদ পাচার করেছেন এবং তাদের বিভিন্ন দেশে বাড়ি রয়েছে। এদের মধ্যে ৯ জন ২০০৯-১৪ মেয়াদে মন্ত্রী ছিলেন, ১৭ জন ২০১৪-২০১৮ মেয়াদে মন্ত্রী ছিলেন এবং বাকিরা বর্তমান মন্ত্রিসভার সদস্য।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, মন্ত্রী ছাড়াও আরো অন্তত ৫৭ জন এমপির তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে যারা বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচার করেছেন। সেই সমস্ত দেশে তাদের সম্পদ রয়েছে। এই সম্পদের মধ্যে রয়েছে বাড়ি, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এবং বিদেশি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা জমা রাখা।

আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সূত্রে জানা গেছে, যে ৩৩জন সাবেক এবং বর্তমান মন্ত্রী বিদেশে সম্পদ গড়েছেন তাদের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাড়ি আছে ১৪ জনের, কানাডায় বাড়ি করেছেন ৬জন, সিঙ্গাপুরে বাড়ি করেছেন ৪জন এবং মালেয়শিয়ায় সেকেন্ড হোম গড়েছেন বাকিরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে এই সম্পদ তারা বৈধ নাকি অবৈধ পথে পাচার করেছেন সে ব্যাপারে আরো তদন্ত করছে গোয়েন্দাসংস্থা। তদন্তের পর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদনগুলো প্রধানমন্ত্রীর কাছে দেওয়া হবে।

তবে প্রাথমিকভাবে যাদের বিরুদ্ধে এই সমস্ত অভিযোগগুলো উত্থাপিত হয়েছে সেই সমস্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে আগামী কাউন্সিলে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বড় ধরনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে। -বাংলা ইনসাইডার

 

Developed by :