Wednesday, 26 February, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




স্বেচ্ছায় দায়িত্ব পালন করা ক্ষুদে ট্রাফিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

খন্দকার শাহিন, নরসিংদী: নরসিংদীতে নিয়ন্ত্রণহীন ব্যাটারি চালিত ইজিবাইকের জটলা ও যানজট নিরসন করতে ক্ষুদে ট্রাফিক বেশে লাঠি হাতে দাঁড়িয়ে থাকতো মিলন মিয়া (২৮) নামে এক যুবক।

তবে ক্ষুদে পুলিশ বেশে আর কোনদিন দেখা যাবে না তাকে, রাস্তা পার হওয়ার সময় মিলনের প্রাণ কেড়ে নিল বেপরোয়া ট্রাকে। শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে নরসিংদী-রায়পুরা আঞ্চলিক সড়কের আরশীনগর মোড়ে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মিলন মিয়া রায়পুরা মরজালের মনজু মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় ঘাতক ট্রাক ও চালককে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন, সড়কে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি দূর করতে তিন ফুট উচ্চতার শারীরিক প্রতিবন্ধী মিলন খুব উৎসাহী ছিল।

সেইসাথে প্রায় সময়ই আরশীনগর রেলক্রসিংয়ের যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশের সহযোগী হিসেবে কাজ করতো মিলন। ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস বেপরোয়া ট্রাকের চাপায় মিলন আজ না ফেরার দেশে চলে গেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রায়পুরা থেকে বালুবোঝাই করা ট্রাকটি নরসিংদী শহরের দিকে যাচ্ছিল। আরশীনগর মোড়ে বেপরোয়া ভাবে বাঁক নেওয়ার সময় ওই ট্রাকের নিচে মিলন মিয়া চাপা পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয় তার।

আবির মৃধা নামের একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, ট্রাকের চাকার নিচে মাথাটা পড়ে মগজটা ছিটকে গেলো। চোখের সামনে এমন মর্মান্তিক মৃত্যু দেখে শরীরটা বারবার গুলিয়ে যাচ্ছে। ওই দৃশ্যটা বারবার চোখের সামনে ভেসে উঠছে।

নরসিংদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান জানান, বালুবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মিলন মারা যায়। ঘাতক ট্রাক ও এর চালককে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

Developed by :