Wednesday, 20 November, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




সরকার পতনে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে ব্যারিস্টার মওদুদের আহ্বান

ঢাকা: ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে বিদায় করতে নেতা-কর্মীদের আন্দোলনের প্রস্তুতির আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, আন্দোলনের সময় আসছে। আপনাদের এখন প্রস্তুতি নিতে হবে। এই সরকারকে আর ক্ষমতায় থাকতে দিতে পারি না। ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে বিদায় করতে হবে।

শনিবার (১২ অক্টোবর) বিকালে রাজধানীে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে এক জনসমাবেশে তিনি এ আহ্বান জানান।

ভারতের সঙ্গে সরকারের দেশবিরোধী চুক্তি ও বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এ জনসমাবেশ কর্মসূচির আয়োজন করে।

আবরার হত্যা প্রসঙ্গে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, একজন আবরারকে হত্যা করে কোনও লাভ হবে না, শত শত আবরার জন্ম নেবে।

তিনি বলেন, গত ১০ বছরে ছাত্রলীগ-যুবলীগের তাণ্ডবলীলা দেখেছেন। তারা জুয়ার আসর বসিয়ে, ক্যাসিনো চালিয়ে লাখ লাখ টাকার মালিক হয়েছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ দুর্নীতির খাদে পড়েছে। তারা আর উঠে আসতে পারবে না। এই সরকারের পতন এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

মওদুদ আরও বলেন, ২ কোটি টাকার মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজকে ২ শত কোটি টাকা যুবলীগ নেতা শামীমের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাওয়া গেছে। ক্যাসিনো সম্রাট (ইসমাঈল হোসেন সম্রাট) আছে বহাল তবিয়তে। তাকে পিজি ও বারডেম চিকিৎসা দেয়ার ব্যাপারে মানুষ উদ্বিগ্ন। কিন্ত আমাদের নেত্রীকে ১ বছর ২ মাস পর হাসপাতালে আনা হয়। তাকে আশানুরূপ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না।

প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে কিছুই নিয়ে আসতে পারে নি বলেও অভিযোগ করেন মওদুদ। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, এই নতজানু সরকার যতদিন ক্ষমতায় থাকবে ততদিন আমাদের ন্যায্য অধিকার আদায় হবে না।

সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, খালেদা জিয়া অত্যন্ত মুমূর্ষ অবস্থায় আছেন। তার ডাক হাত ফুলে গেছে। আমরা বারবার বলছি তার উন্নত চিকিৎসা দরকার। কিন্তু সরকারের নতজানু ডাক্তাররা বারবার বলছেন, খালেদা জিয়া সুস্থ আছেন।

তিনি বলেন, আজকে ফেনী নদীর পানি দিয়ে আসছে। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকলে একটু ফুটা পানিও দিতেন না। যার পাশে কেউ থাকে না তারা ভবঘুরে হয়। এই সরকারের পাশে কেউ নেই। তাই এ সরকার ভবঘুরে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবীব উন নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- বিএনপি নেতা আবুল খায়ের ভূঁইয়া, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, শহীদ উদ্দিন চৌধূরী এ্যানী, আফরোজা আব্বাস, সাইফুল আলম নিরব, সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকু, আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েলসহ ঢাকা মহানগর কমিটির নেতারা।

সমাবেশকে কেন্দ্র করে প্রায় ৫০জন নেতা-কর্মীকে আটক করা হযেছে বলে বিএনপি থেকে অভিযোগ করেন হাবীব উন নবী খান সোহেল।

 

Developed by :