Tuesday, 22 October, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




বাঙালি দুই এমপি রুশনারা আলী ও রুপা হক ট্রিগার ব্যালটের সম্মুখীন

যুক্তরাজ্যের হাউস অব কমন্সের আগামী নির্বাচনে লেবার পার্টির মনোনয়ন পেতে হলে বর্তমান অধিকাংশ এমপিদেরকে কনস্টিটিউন্সি লেবার পার্টির সদস্যদের ট্রিগার ব্যালটের মাধ্যমে সমর্থন পেতে হবে।

মাতৃত্বকালীন ছুটি ভোগ করার কারণে টিউলিপকে ট্রিগার ব্যালটের সম্মুখীন হতে হবে না।

আলী বেবুল, লন্ডন:

যুক্তরাজ্যের আগামী সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে লেবার পার্টি সংসদীয় আসনগুলোতে প্রার্থী নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। যুক্তরাজ্যের হাউস অব কমন্সের ৬৫০ টি আসনের মধ্যে বিগত সাধারণ নির্বাচনে লেবার ২৪৬ আসন পেয়েছিল।

জেরেমি করবিনের নেতৃত্বে হাউস অব কমন্সে লেবার পার্টি বিরোধী দলের শক্ত ভূমিকা পালন করছে। ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে লেবার নেতা জেরেমি করবিনের কাছে ক্ষমতাসীন টোরি পার্টির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন প্রচন্ড চাপের মধ্যে আছেন।

ব্রেক্সিট হবে কি হবে না? এরকম দ্বিধা ও সংশয়ের মধ্যে আছে গোটা ইউরোপ। ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে যুক্তরাজ্যের সরকার ও জনগণ চরম অস্বস্তিকর অবস্হার মধ্যে পড়েছেন। মারাত্মক রাজনৈতিক সংকট ও ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে যুক্তরাজ্য। একটি অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে যুক্তরাজ্য।

ব্রেক্সিট ইস্যুকে কেন্দ্র করে একটি স্ন্যাপ নির্বাচনের দিকে যেতে পারে যুক্তরাজ্য। উল্লেখ্য বর্তমান হাউস অব কমন্সের নির্বাচন হয়েছিল ২০১৭ সালের ৮ জুন। নিয়মানুযায়ী ২০২২ সালের ৫ মে পরবর্তী নির্বাচন হওয়ার কথা। সবকিছু নির্ভর করছে ব্রেক্সিট নিয়ে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের উপর। এর জন্য আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

লেবার পার্টি আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে সংসদীয় আসনগুলোতে ইতোমধ্যে প্রার্থী নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। বর্তমানে যারা হাউস অব কমন্সের লেবার এমপি আছেন তাদেরকে আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হতে হলে তৃণমূল লেবারের সমর্থন আদায় করতে হবে।

কনস্টিটিউন্সি লেবার পার্টি (CLP) এর সদস্যরা ট্রিগার ব্যালটের মাধ্যমে বর্তমান লেবার এমপিকে সংসদীয় আসনে আবার এমপি হিসেবে দেখতে চান কিনা হ্যাঁ বা না ভোটের মাধ্যমে মতামত জানাবেন। লেবার পার্টি নেতা জেরেমি করবিন এবং লেবার এমপি যারা মাতৃত্বকালীন ছুটি ভোগ করছেন তারা ট্রিগার ব্যালটের আওতায় পড়বেন না।

এবার সংসদীয় আসনে প্রার্থী নির্বাচনের মনোনয়ন প্রক্রিয়ার তৃণমূলের মতামত নেয়ায় লেবার পার্টির সদস্যরা দারুণ খুশী।তারা পছন্দের প্রার্থীকে এমপি হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বীতার জন্য বাছাই করতে পারবেন। যুক্তরাজ্যের হাউস অব কমন্সে এখন ৩ জন বঙ্গকন্যা রুশনারা আলী, রুপা হক ও টিউলিপ সিদ্দিক লেবার এমপি হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করে বাঙালির মুখ উজ্জ্বল করেছেন।

আগামী নির্বাচনে প্রার্থীতার জন্য রুশনারা আলী ও রুপা হককে কনস্টিটিউন্সি লেবার পার্টি (CLP)এর সদস্যদের ট্রিগার ব্যালটের সম্মুখীন হতে হচ্ছে।তন্মধ্যে টিউলিপ সিদ্দিককে মাতৃত্বকালীন ছুটি ভোগ করার কারণে তাকে ট্রিগার ব্যালটের সম্মুখীন হতে হবে না।

উল্লেখ্য, সেন্ট্রাল লন্ডনের হ্যাম্পস্টেড ও কিলবার্ন আসনের লেবার দলীয় বর্তমান এমপি। বাঙালী অধ্যুষিত বেথনাল গ্রীণ ও বো আসনের লেবার দলীয় বর্তমান এমপি রুশনারা আলী সংসদীয় আসনের ৯ টি ওয়ার্ডের কনস্টিটিউন্সি লেবার পার্টির সদস্যদের ট্রিগার ব্যালটের সম্মুখীন হতে হচ্ছে। ইতোমধ্যে এ আসনের ৫টি ওয়ার্ডের ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। সবটিতে রুশনারা আলী জয়ী হয়েছেন। বাকী ৪টি ওয়ার্ডের ভোটের উপর নির্ভর করছে রুশনারা আলীর ভবিষ্যৎ।

বড় ধরণের কোন অঘটন না গঠলে রুশনারা আলীর বাকী ওয়ার্ডগুলোতে জয়ের সম্ভাবনা শতভাগ। লেবার পার্টির বেথনাল গ্রীণ ও বো আসনের বাঙালী সদস্যরা রুশনারা আলীর পক্ষে ঐক্যবদ্ধ। রুশনারা আলীর উপর অনেক মান অভিমান থাকলেও কোন অবস্হাতেই হাতছাড়া করতে চায় না বাঙালীরা এ আসনটিকে।

ট্রিগার ব্যালটে রুশনারা আলীর বিরুদ্ধে ‘না’ ভোট দিলে বেথনাল গ্রীণ ও বো আসন থেকে লেবার থেকে বাঙালী কেউ মনোনয়ন পাবেন এ সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ।

সব মিলিয়ে এখানকার বাঙালীরা রুশনারা আলীর পক্ষে।

উল্লেখ্য, রুশনারা আলী ২০১০ সাল থেকে বেথনাল গ্রীণ ও বো আসনের লেবার দলীয় এমপি।

আরেক বাঙালী কন্যা রুপা হক প্রথমবারের মতো ২০১৭ সালে সেন্ট্রাল লন্ডনের ইলিং এন্ড এক্টন আসনে থেকে লেবার পার্টি থেকে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তাকেও আগামী নির্বাচনে লেবার পার্টির মনোনয়ন পেতে হলে ট্রিগার ব্যালটের সম্মুখীন হতে হবে।

 

Developed by :