Tuesday, 22 October, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৭ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




বিয়ানীবাজার উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন ৭ নভেম্বর, সভাপতি-সম্পাদকের মধ্যে ঐক্যের চেষ্টা

বিয়ানীবাজার: আগামী ৭ নভেম্বর বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল জেলা আ’লীগের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এলক্ষে আগামী ১২ অক্টোবর সংগঠনের বর্ধিত সভা আহ্বান করা হয়েছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজি আব্দুল হাসিব মনিয়া জানান, ৭ নভেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের বিষয়টি আমাদেরকে জেলা থেকে জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, বিয়ানীবাজার পৌরসভা অডিটরিয়ামে ১২ অক্টোবরের বর্ধিত সভা হবে। এরপর সম্মেলন সফল করতে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করবো।

এদিকে, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দু’মেরুতে অবস্থান করলেও দু’জনের মধ্যে বরফ গলানোর বিশেষ উদ্যোগ নেয়ার খবর পাওয়া গেছে। হয়ত দলের বৃহত্তর দিক বিবেচনা করে ঐক্য হতে পারে।

সূত্রমতে, ২০০৩ সালে বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ৬১ সদস্য বিশিষ্ট উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির অধিকাংশ দায়িত্বশীল প্রবাসে রয়েছেন এবং অনেকেই প্রয়াত হয়েছেন। এরমধ্যে গত ১৬ বছর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এক সাথে থাকায় বিভিন্ন সময় দলের অভ্যন্তরিন কোন্দল মাথাচাড়া দিয়ে উঠলেও দুই নেতা সামলে নিয়েছিলেন। কিন্তু এবার বিগত উপজেলা নির্বাচন নিয়ে সভাপতি ও সম্পাদকের মধ্যে বিরোধ প্রকাশ্যে দেখা দেয়। ফলে দুই জনের বিপরীতমূখী অবস্থায় আগামী ৭ নভেম্বর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

বুধবার সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় কেন্দ্রীয় নেতারা জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন আয়োজনের আভাস দেন। জেলার সম্মেলনের পূর্বে বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন করার নির্দেশ দেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারীত হওয়ায় নেতাকর্মীদের মধ্যে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেকেই সম্মেলনের তারিখ উল্লেখ করে পোস্ট দিচ্ছেন।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান বলেন, সম্মেলনের প্রস্তুতি নেয়ার জন্য বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীলদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, যদি বড় ধরনের কোন সমস্যা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা দেশের বিশেষ কোন কারণ না থাকে তাহলে সম্মেলন ৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এবার সম্মেলন হবেই-হবে। সন্দেহের কোন কারণ নেই।

 

Developed by :