Friday, 20 September, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




নানকার কৃষক দিবস পালিত: ‘নানকার কৃষক আন্দোলন পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভূক্তির দাবি’

বিয়ানীবাজারবার্তা২৪.কম: বিয়ানীবাজারে যথাযোগ্য মর্যাদায় ৭০তম ঐতিহাসিক নানকার কৃষক বিদ্রোহ দিবস পালিত হয়েছে। রোববার দিনব্যাপী তিলপাড়া ইউনিয়নের সানেশ্বর-উলুউরী গ্রামের মধ্যবর্তী সোনাই নদীর তীরে নির্মিত শহীদ স্মৃতিসৌধে বিভিন্ন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে নানকার কৃষক শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

পরে শহীদবেদিতে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও এলাকার বিশিষ্টজন বক্তব্য রাখেন। সভায় বক্তারা নানকার কৃষক শহীদ স্মৃতিসৌধ সংরক্ষণে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। পাশাপাশি তাঁরা নানকার কৃষক আন্দোলনসহ বাঙালি জাতির সকল কৃষক বিদ্রোহ পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভূক্তির দাবি জানিয়ে বলেন, আমরা ইতিহাস লালন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছি। আমাদের শেকড় সম্পর্কে জানতে হবে, নতুন প্রজন্মকে তা জানাতে হবে। বক্তারা আরো বলেন, পাক শাসকদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদি হওয়ার খোরাক যুগিয়েছিলো নানকার কৃষক আন্দোলন। এসব আন্দোলন দৃষ্টির বাইরে রাখলে বাঙালির ইতিহাস ম্লান হয়ে যাবে।

বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুরের সভাপতিত্বে ও বিয়ানীবাজার সাংস্কৃতিক কমান্ডের সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদের পরিচালনায় আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মো. সরওয়ার হোসেন, বিশেষ অতিথি ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান, বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি মজির উদ্দিন আনসার, সিলেট মহানগর শ্রমিক লীগের সভাপতি এম. শাহরিয়ার কবির সেলিম, তিলপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. ইসলাম উদ্দিন, বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক জামাল হোসেন, বিয়ানীবাজার উপজেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি আনিসুর রহমান, সিলেট জেলা মুক্তিযোদ্ধা যুব কমান্ডের সহ সভাপতি কবি ওয়ালী মাহমুদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, নানকার স্মৃতি রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কেতকী রঞ্জন দাস, শিক্ষক সাধন দাস, মিন্টু কান্ত দাস প্রমুখ।

এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিয়ানীবাজার উপজেলা সুজন’র শাখার সাবেক সভাপতি সাহাব উদ্দিন মাওলা, বিয়ানীবাজার জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আহমেদ ফয়সাল, দিবালোক পত্রিকার সম্পাদক হাসান শাহরিয়ার, বিয়ানীবাজার পৌরসভার কাউন্সিলর আকসার হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা বদরুল ইসলাম ও হোসেন আহমদ, পর্তুগাল আওয়ামী লীগ নেতা দেলওয়ার হোসেন, কর্ণ মনি দাস, স্কুল শিক্ষক বিপ্লব চন্দ্র দাস, বিয়ানীবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সহ দপ্তর সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান টিপু, শিক্ষক মুজাহিদুল ইসলাম, বিয়য়ানীবাজার সাংস্কৃতিক কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক আবিদ হোসেন জাবেদ প্রমুখ।

এদিকে, নানকার কৃষক শহীদ স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পন করে বিয়ানীবাজার পৌরসভা, বিয়ানীবাজার সাংস্কৃতিক কমান্ড, উলুউরী নানকার স্মৃতি পাঠাগার, সানেশ^র নানকার স্মৃতি সংসদ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি, কানাডা আওয়ামী লীগ, বিয়ানীবাজার জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, উলুউরী নানকার স্মৃতি যুব সংঘ।

পরে নানকার আন্দোলন নিয়ে গীতিকবি হেমাঙ্গ বিশ্বাশের গান পরিবেশন করেন বিয়ানীবাজার সাংস্কৃতিক কমান্ডের শিল্পী হাবিব, রিপন, সাকের ও সানি।

 

Developed by :