Saturday, 17 August, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




চলমান প্রটোকল সুবিধা নিশ্চিতের নির্দেশ হাইকোর্টের

সংবিধান, ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স ও দেশের আইন অনুসারে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্ধারিত সুবিধাদি (প্রটোকল) নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স অনুসারে যারা এ ধরনের প্রটোকল সুবিধাদি পান, কোনো ধরনের ব্যর্থতা ছাড়াই তা চলমান রাখতে বলা হয়েছে।

এক রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেন। সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে অবিলম্বে এ আদেশের অনুলিপি সব জেলা জজ, মন্ত্রিপরিষদ ও জনপ্রশাসন সচিবকে পাঠাতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি সুপ্রিমকোর্টের বিষয়ে সংবাদ প্রচার-প্রকাশের ক্ষেত্রে গণমাধ্যমকে আরো সতর্ক হতে বলা হয়েছে।

আদালত আদেশে বলেছেন, মানুষের জন্য সংবাদ পরিবেশন করা বড় ধরনের দায়িত্ব। রাষ্ট্র ও সমাজের মুখপাত্র হিসেবে সাংবাদিকদের উচ্চ মর্যাদা রয়েছে। তাদের কাছে প্রত্যাশা, সাংবাদিকরা আরো দায়িত্বশীল হয়ে উঠবেন। তাদের দায়িত্বশীলতায় খণ্ডিত বা আংশিক নয়, সম্পূর্ণ সত্যের প্রতিফলন থাকবে।

‘হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার পরও ভিআইপি প্রটোকল চাইলেন বিচারপতি’ অনলাইন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এমন খবরের সূত্র ধরে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শাহীনুর রহমান রিটটি করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী একরামুল হক, সৈয়দ মামুন মাহবুব ও তাপস কুমার বিশ্বাস। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

আদেশের পর একরামুল হক টুটুল সাংবাদিকদের বলেন, কিছু সংবাদমাধ্যম প্রটোকল নিয়ে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চকে মিসকোট করে সংবাদ প্রচার করেছে। পরে একজন বিচারপতির সফর নিয়েও বিভ্রান্তিকর সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। এতে সুপ্রিম কোর্ট ও সাংবিধানিক পদাধিকারীর মর্যাদা ক্ষুণ্ন করা হয়েছে, এটাই আমি শুনানিতে বলেছি।

 

Developed by :