Saturday, 17 August, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




গোলাপগঞ্জে ওষুধ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ড্রাগ সুপারের মতবিনিময়

গোলাপগঞ্জ: গোলাপগঞ্জে ডেঙ্গু প্রতিরোধ ও খোলা বাজারে এন্ট্রিবায়োটিকের বিক্রয় বন্ধের বিষয়ে ওষুধ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মত বিনিময় করলেন সিলেটের ড্রাগ সুপার শিকদার কামরুল ইসলাম।

বুধবার (৭ আগস্ট) বিকেলে গোলাপগঞ্জের একটি পার্টি সেন্টারে আয়োজিত এ মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি শিকদার কামরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেছেন, মানুষের জীবন রক্ষার জন্য ওষুধের প্রয়োজন, এক্ষেত্রে মাত্রাতিরিক্ত ঔষধের ব্যবহার জীবনের জন্য বড় ধরনের ক্ষতির কারণ হয়ে দেখা দিতে পারে। বিশেষ করে এন্ট্রিবায়োটিকের অবাধ ব্যবহার মানব দেহের জন্য খুবই ক্ষতির কারণ। যারা রোগীদেরকে তাড়াতাড়ি সুস্থ করার জন্য উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন এন্ট্রিবায়োটিক ব্যবহারের পরামর্শ দেন তাদের অবশ্যই জানা থাকা দরকার সবসময় এন্ট্রিবায়োটিকের প্রয়োজন হয় না। পরিমিত ভাবে ঔষধ ব্যবহার করতে হয়। এছাড়া মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধের ব্যাপারে তিনি কঠোর সতর্ক বানী দিয়ে বলেন কোন ফার্মেসীতে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়া গেলে রেহাই নেই, জরিমানাসহ লাইসেন্স বাতিল করা হবে। ইতিমধ্যে সারা দেশে অভিযান চালিয়ে ৩৬ শত কোটি টাকার মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ আটক করা হয়েছে।

এসময় তিনি আরো বলেন, অধিক তাপমাত্রায় ওষুধের কার্যক্ষমতা কমে যায়। সহনীয় তাপমাত্রায় ঔষধ রাখার জন্য তিনি সকল ব্যবসায়ীদের পরামর্শ দেন। ডেঙ্গু প্রতিরোধে ঔষধ ব্যবসায়ীদের সহায়তা কামনা করে বলেন, দেশের হঠাৎ করে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় জন মনে আতংক সৃষ্টি হয়েছে। এই অবস্থা থেকে জাতিকে রক্ষা করতে হলে ওষুধ ব্যবাসায়ীরা সহায়তার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে।

 

Developed by :