Thursday, 6 October, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




রহমানিয়া প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের ফ্রি স্বাস্থ্যসেবা

‘প্রতিবন্ধীরা বোঝা নয়, তাঁরা সম্পদ’

সিলেট: ‘প্রতিবন্ধীরা সমাজের জন্য বোঝা নয়, তাঁরা আমাদের সম্পদ। তাদের মধ্যে লুকায়িত রয়েছে উদ্ভাবনী শক্তি। ভালো মানুষ কাজে ফাঁকি দিলেও প্রতিবন্ধীরা তা করেনা। তারা সক্ষম ব্যক্তির চেয়ে দ্বিগুণ কাজ করতে পারে। এমনকি বিশ^ অলিম্পিকে আমাদের সুস্থ খেলোয়াড়রা গোল্ডমেডেল আনতে না পারলেও প্রতিবন্ধীরা প্রতিবছর অসংখ্য গোল্ডমেডেল পায়। প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন। এমনকি প্রধানমন্ত্রীকন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল প্রতিবন্ধীদের নিয়ে দেশ-বিদেশে কাজ করছেন। আমরা প্রত্যেকেই নিজের অবস্থান থেকে সামান্য হলেও প্রতিবন্ধীদের দিকে নজর দিলে তাদের পরিবার কিছুটা হলেও স্বাচ্ছন্দবোধ করবে। এছাড়া, অনেকেই প্রতিবন্ধীদের নামে অর্থ সংগ্রহ করে কিন্তু কেউ কেউ তাদের কল্যাণে কাজ করেনা। এ বিষয়টিও সবার নজরে রাখতে হবে।’

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সদর উপজেলার গোয়াবাড়ী এলাকায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ফ্রি স্বাস্থ্য সেবা (ফিজিওথেরাপি) ও রক্তের গ্রুপ নির্ণয় অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

রহমানিয়া প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশন এ উদ্যোগ গ্রহণ করে। এতে শতাধিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ও বিপুলসংখ্যক লোক ফিজিওথেরাপি এবং রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করেন।

ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলহাজ আতাউর রহমান খান শামছুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ আশফাক আহমদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক সিলেটের ডাক এর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক রোটারিয়ান ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিঃ সিলেটের নির্বাহী পরিচালক জসিম উদ্দিন খন্দকার, সুইড বাংলাদেশ সিলেটের সভাপতি প্রবীণ শিক্ষক শওকত আলী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আশফাক আহমদ বলেন, শারীরিক সুস্থতা ও অসুস্থতা দু’টিই নেয়ামত। আল্লাহ নিজেই তা নির্ধারণ করে থাকেন। তিনি বলেন, ইচ্ছা শক্তি ও মহৎ উদ্যোগ থাকলে সমাজ ও দেশের জন্য কিছু করা যায়। তারই উদাহরণ আতাউর রহমান খান শামছু। তিনি নিজে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয়েও মানবতার কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবী রাখে। তিনি বলেন, ভিক্ষাবৃতি হারাম। আপনি একজনের কাছে হাত পাতলেন, আল্লাহ আপনার জন্য ১০০ দরজা খুলে দিবেন। তিনি ছেলেধরা, কল্লাকাটা গুজব প্রতিরোধ এবং ডেঙ্গুর হাত থেকে বাঁচতে সবাইকে বাসাবাড়ির আশপাশ পরিষ্কার রাখার আহ্বান জানান।

বক্তব্য রাখছেন ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ওয়াহিদুর রহমান বলেন, প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ানো করুণা নয়, তাদের কল্যাণে কাজ করা আমাদের নৈতিক ও ঈমানী দায়িত্ব। তিনি পবিত্র কোরআনের আলোকে বলেন, যে ব্যক্তি দু’জন অসহায়কে লালন-পালন করবে; কেয়ামতের দিন তাকে মহান আল্লাহ দু’আঙ্গুল পরিমাণ দূরত্বে রাখবেন। এজন্য তিনি শুধু কথায় নয়, সামর্থ্য অনুযায়ী সবাইকে পরের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান। পাশাপাশি রোটারিয়ান ওয়াহিদ প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশনে অনুদানের প্রতিশ্রুতি দেন এবং তাদের সাথে কাজ করার অঙ্গীকার করেন।

ফুলকলির নির্বাহী পরিচালক জসিম উদ্দিন খন্দকার বলেন, আমার ফ্যাক্টরিতে ১৫জন প্রতিবন্ধীকে চাকুরি দিয়েছি। তাদের কাজে আমরা খুবই সন্তুষ্ট। এজন্য তিনি আরো প্রতিবন্ধীকে কাজ দেওয়ার অঙ্গীকার করেন।

ফাউন্ডেশনের অফিস সম্পাদক আল আমীন আহমদ নাঈম ও ২১নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সহ সভাপতি মহররম আলীর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ফজলুর রহমান, সিলেট ব্লাইন্ড ক্রিকেট ক্লাবের সহ সভাপতি শেখ নুরুল ইসলাম খালেদ, প্রবাসী কমিউনিটি নেতা মোহাম্মদ ফয়সল আহমদ, আখতার আহমদ ও জামাল আহমদ, সদর উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি মকবুল হোসেন খান।

এছাড়া, অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রহমানীয়া ফাউন্ডেশনের সহ সভাপতি আলমগীর আলম খান, প্রচার সম্পাদক কুতুব উদ্দিন শহিদি, নির্বাহী সদস্য আব্দুল মোমিন, বাপ্পি হোসেন সমাজকর্মী আলী হোসেন রাহী, ফাতেমা আক্তার, খাদিজা আক্তার, আতিকুর রহমান জাকির প্রমুখ।

 

Developed by :