Saturday, 19 October, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৪ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




মৌলভীবাজারে ডেঙ্গু আক্রান্ত ১০ জন

মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজার জেলায় এ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত ১০ জন রোগীকে শনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজন ছাড়া সবাই ঢাকা থেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এসেছেন। তবে একজন স্থানীয়ভাবে আক্রান্ত হয়েছেন বলে ধারণা করছেন চিকিৎসকদের।

মৌলভীবাজার সিভিল সার্জনের কার্যালয়, সদর হাসপাতাল এবং বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) এর তথ্য মতে জেলায় এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ১০ জন। এদের মধ্যে ২ জন মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন, ২ জন মৌলভী পলি ক্লিনিকে এবং ২ জন সিলেটে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বাকি ২ জন সুস্থ হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছে মৌলভীবাজার জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয়।

এছাড়া শনিবার (২৭ জুলাই) আরও নতুন দুইজনের ডেঙ্গু ধরা পড়েছে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, মৌলভীবাজারে ডেঙ্গু আক্রান্তদের শারীরিক অবস্থা ভালো রয়েছে।

আক্রান্তদের সবাই নিয়মিত ঢাকা যাওয়া-আসা করছিলেন। তবে স্থানীয়ভাবে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন মৌলভীবাজার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের এক ছাত্র। তার সম্প্রতি ঢাকা ভ্রমণের কোন রেকর্ড নাই।

এদিকে মৌলভীবাজার পৌরসভা ও জেলা প্রশাসন ডেঙ্গু প্রতিরোধে পরিচ্ছন্নতা ও বিভিন্ন সচেতনতামূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।

মৌলভীবাজার-৩ (সদর-রাজনগর) আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে চিকিৎসকদের সাথে বৈঠক করেছেন। পাশাপাশি সচেতনতামূলক কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন।

মৌলভীবাজারের সিভিল সার্জন ডা. শাহজাহান কবির চৌধুরী বলেন, ডেঙ্গু মোকাবেলায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সতর্ক রয়েছে। মৌলভীবাজার জেলায় ২৫০ শয্যা হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে ডেঙ্গু চিকিৎসার জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি রয়েছে।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) মৌলভীবাজারের সভাপতি ডা. শাব্বির হোসেন খান বলেন, ‘ডেঙ্গুর এই প্রকোপ আগামী ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে কমে আসবে বলে বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন। এই সময়টুকু আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে। অপ্রয়োজনে ডেঙ্গুপ্রবণ এলাকা (ঢাকা) ভ্রমণ পরিহার করতে হবে। একান্তই ঢাকায় যেতে হলে অবশ্যই মশারি ব্যবহার করতে হবে। শরীরের খোলা অংশে (হাত ও পায়ে) মশা-বিতারণকারী মলম (যেমন: ODOMOX) ব্যবহার করতে হবে। এটা মৌলভীবাজারের বড় ফার্মেসি ও ডিপার্টমেন্ট স্টোরে পাওয়া যেতে পারে। সেই সাথে হাত-পা প্রায় ঢেকে রাখে, এমন পোশাক পড়তে হবে।

মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে এরই মধ্যে আমরা পরিচ্ছন্নতা ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি।

 





Developed by :