Sunday, 18 August, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




গোলাপগঞ্জে গণপিটুনি ঠেকাতে পুলিশের মাইকিং

গোলাপগঞ্জ: সারাদেশের মত সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায়ও বিরাজ করছে ছেলে ধরা আতঙ্ক। আতঙ্কিত হয়ে ভয়ে বাচ্চাদের ঘর থেকে বের হতে দিচ্ছেন না অভিভাবকরা। এমন কি স্কুলের উদ্দেশ্যে সন্তানদের একা ছাড়ছেন না তারা।  গত কয়েকদিন আগে থেকেই এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন সর্বসাধারণ মানুষ। অপরিচিত কাউকে পেলেই গণধোলাই দিয়ে থানায় সোপর্দ করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে দেশের বিভিন্ন উপজেলায় ছেলে ধরা আতঙ্কে কয়েকজন গণধোলাইর শিকার হয়ে মারা গেছেন। এছাড়াও অনেকেই গণধোলাইর শিকার হয়ে গুরুতর আহতও হয়েছেন। গত কয়েকদিন আগে গোলাপগঞ্জ উপজেলায়ও এক যুবক ছেলে ধরে সন্দেহে গণপিটুনির শিকার হয়েছেন।এরপর উত্তেজিত জনতা তাকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। পরে জানা যায় সে ছেলে ধরা নয়।

এদিকে রোববার (২১ জুলাই) সকাল হতে পুরো গোলাপগঞ্জ উপজেলায় থানা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এটিকে গুজব বলে জনসচেতনতার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়েছে। এতে বলা হয়, কোন অপরিচিত ব্যক্তিকে ছেলে ধরা সন্দেহ করে গণপিটুনি না দিতে এবং ছেলে ধরা গুজবে আতঙ্কিত না হতে।

মাইকিংয়ে আর বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় অপরিচিত ব্যক্তিকে দেখে ছেলেধরা সন্দেহে একশ্রেণীর উৎসুক জনতা গুজব রটানোর মাধ্যমে গণধোলাই দিচ্ছে। গুজব দ্বারা প্রভাবিত হয়ে গণপিটুনি দেয়া একটি ফৌজদারি অপরাধ। কোন ব্যক্তিকে সন্দেহ হলে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় তাৎক্ষণিক জানানোর জন্য অনুরোধ করা হয়। এছাড়াও জরুরি প্রয়োজনে জনসাধারণ ৯৯৯ নম্বরে কল দিয়ে যে কোন সহায়তা নিতে পারবেন বলেও মাইকিংয়ে উল্লেখ করা হয়।

 

Developed by :