Friday, 19 July, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




কানাইঘাটে মসজিদে নামাজরত অবস্থায় আ.লীগ নেতার উপর হামলা

কানাইঘাট: কানাইঘাটে জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়রির আবেদন করায় মঙ্গলবার রাতে আওয়ামী লীগ নেতা ঠিকাদার মখলিছুর রহমানকে মসজিদের ঘরে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয়েছে।

এ ঘটনায় এলাকায় জনমনে ক্ষোভ বিরাজ করছে। মসজিদের ঘরে নামাজরত অবস্থায় মখলিছুর রহমানের উপর হামলাকারী তারই চাচাতো ভাই শফিকুর রহমান বাবুলকে গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন স্থানীয়রা।



জানা যায়, কানাইঘাট বাণীগ্রাম ইউপির বড়দেশ উত্তর নয়াগ্রামের মৃত মহরম আলীর পুত্র বাণীগ্রাম ইউপি আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মখলিছুর রহমান (৫২) এর সাথে তার চাচাতো ভাই শফিকুর রহমান বাবুল (৫৫) এর বিরোধ চলে আসছিল।

এ নিয়ে সম্প্রতি সময়ে বেশ কয়েকবার মখলিছুর রহমানকে তার নিজ বাড়ীতে গিয়ে বাবুল প্রাণের হত্যার হুমকি এবং জমি জোরপূর্বক ভাবে দখল করে নেওয়ার হুমকি দিলে মখলিছুর রহমান থানায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে মঙ্গলবার কানাইঘাট থানায় বাবুলের বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়রীর আবেদন করলে বিকেলের দিকে থানা পুলিশ বিয়ষটির তদন্ত করেন।



এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে বাবুল মখলিছুর রহমান গ্রামের মসজিদে মাগরিবের নামাজ পড়তে গেলে মসজিদে উপস্থিত হয়ে বাবুল মখলিছুর রহমানের উপর হামলার চেষ্টা ও গালিগালাজ করলে প্রাণের ভয়ে মখলিছুর রহমান মসজিদ থেকে বের হননি।

এশার সুন্নত নামাজ পড়া অবস্থায় বাবুল মসজিদের ভিতরে চড়াও হয়ে মেগ লাইট ও লাঠি সোটা দিয়ে মখলিছুর রহমানের উপর হামলা করলে গুরুতর রক্তাক্ত হয়ে মসজিদে লুঠিয়ে পড়েন তিনি। মসজিদের ভিতর মখলিছুর রহমানের রক্তে একাকার হয়ে যায়।



একপর্যায়ের মসজিদের মুসল্লিরা হামলাকারীর কবল থেকে মখলিছুর রহমানকে উদ্ধার করে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় চিকিৎসকরা সিওমেক হাসপাতালে রেফার করেন।

এ ঘটনায় থানায় হামলাকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।



বাণীগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ সহ অনেকেই জানিয়েছেন, মখলিছুর রহমান অত্যন্ত ভদ্র একজন মানুষ। জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়টি মিমাংসাধীন থাকা অবস্থায় বাবুল মসজিদের ভিতরে অত্যন্ত ন্যাক্কার জনক ভাবে হামলা করে মখলিছুর রহমানকে গুরুতর আহত করেছে।




























 





সর্বশেষ সংবাদ

Developed by :