Monday, 23 September, 2019 খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল নিয়ে যা বললেন প্রতিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম ধাপের নিয়োগের প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ তদন্ত করছে মন্ত্রণালয়। তদন্তে প্রমাণ মিললে পরীক্ষা বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী। এদিকে পরের ধাপের পরীক্ষাগুলোর জন্য সর্বোচ্চ সতর্কতা নেয়া হচ্ছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

গত ২৪ মে ২৫ টি জেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহাকারী শিক্ষক নিয়োগের প্রথম ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।



এই পরীক্ষায় সাতক্ষীরা, লক্ষ্মীপুর, পটুয়াখালী, পাবনা জেলায় পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস এবং ডিজিটাল জালিয়াতির অভিযোগ উঠে। ফাঁস এবং ডিজিটাল জালিয়াতির সাথে জড়িত বেশ কয়েকজনকে আটকও করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এরপরই প্রথম ধাপের পরীক্ষা বাতিলের দাবি করছে প্রার্থীরা।



এদিকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে , বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। জেলা শিক্ষাকর্মকর্তারা এটি তদন্ত করছে। তদন্ত প্রতিবেদন চলতি মাসের মধ্যে দেয়া হবে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, চলতি মাসেই তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া যাবে। এরপর প্রমাণ মিললেই আমরা পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিব। কোন প্রকার দুর্নীতিকে ছাড় দেয়া হবে না।



আগামী ২১ জুন তৃতীয় ধাপ ও চতুর্থ ধাপে ২৮ জুন পরীক্ষা হবে। প্রায় ১২ হাজার পদের বিপরীতে তিন পার্বত্য জেলা বাদে ৬১ জেলার ২৪ লাখ এক হাজার ৯১৯ জন প্রার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।




























 





Developed by :