Thursday, 9 April, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |




ইস্যু তৈরির চেষ্টায় বিএনপি, সন্দেহ আ.লীগের

বার্তা২৪ ডেস্ক: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বেগম জিয়ার প্যারোলে মুক্তি চায় না বিএনপি। নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ মনে করছে, কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করছে বিএনপি।

পাশাপাশি প্যারোলের নামে ইস্যু তৈরির চেষ্টা করছে দলটি। এ ধরনের ইস্যু তৈরির চেষ্টা থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আদালতের আদেশে দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে আসামি হিসেবে কারাগারে রয়েছেন। জেলকোড অনুযায়ী তাকে চিকিৎসার জন্য বিশেষায়িত হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

তাদের ভাষ্য, খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। সাধারণত দণ্ডপ্রাপ্ত কারও আত্মীয়-স্বজন মারা গেলে তাকে শেষ দেখা, শেষকৃত্যের জন্য কিংবা অসুস্থ হলে প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি আসে। এখন তেমন কোনো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) ফারুক খান বলেন, ‘প্যারোলে মুক্তি নিয়ে তো আমাদের কিছু করার নেই। সেটা যদি তারা (বিএনপি) চায় তাহলে সরকারের কাছে আবেদন করতে হবে।’

বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি রাজনৈতিক নয়, আইনি বিষয় বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। সাধারণত দণ্ডপ্রাপ্ত কারও আত্মীয়-স্বজন মারা গেলে তাকে শেষ দেখা, শেষকৃত্যের জন্য কিংবা অসুস্থ হলে প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি আসে। তবে আমার জানা মতে, তার তেমন কোনো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।’

আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রহমান বলেন, ‘বিএনপি সব কিছুর মধ্যে ষড়যন্ত্রের গন্ধ খুঁজে পায়। একটা মানুষ রাজবন্দি থাকলে, অপরাধ করে কারাগারে থাকলে তার দুটি পথ আছে মুক্তির। একটা হচ্ছে-আইনগত লড়াই করে, আরেকটি মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে দায়মুক্তি চেয়ে আবেদন করা। এই দুটির কোনোটিই অনুসরণ না করে যদি কেউ প্যারোলে মুক্তি চান তবে সে বিধানও আছে।’

তিনি বলেন, ‘সেই বিধান অনুযায়ী প্যারোলে যদি তিনি মুক্তি চান, তাহলে তাকে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে দরখাস্ত করতে হবে। প্যারোলে মুক্তি পাওয়ার মতো যুক্তিযুক্ত কারণ থাকতে হবে। তাহলে সরকার সেই ক্ষেত্রে বিবেচনা করতে পারে, নাও পারে।’

দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘সরকার খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি নিয়ে কোনো রাজনীতি করছে না। এটা রাজনীতি করার কিছু নেই। উনি সাজাপ্রাপ্ত আসামি। ওনার জামিন হয় না-এটা আদালতের ব্যাপার। ওনার চিকিৎসা দরকার, জেলকোড অনুযায়ী ওনার চিকিৎসা হচ্ছে। আর দশজন নাগরিকের চাইতে সিনিয়র সিটিজেন হিসেবে ওনার মর্যাদা, সম্মান রক্ষা করে সাধারণ কয়েদিদের যেভাবে চিকিৎসা করা হয় তার চাইতে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্পেশালাইজড হাসপাতাল হলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। সেখানেই তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি বলব, ওনারাই (বিএনপি) তাকে (খালেদা জিয়া) নিয়ে রাজনীতি করছেন। অসুস্থতা নিয়ে। একটা মানুষের অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়। এটা ভালো কাজ নয়। এটা উচিত নয়, অনুচিত। এর থেকে আমাদের বেরিয়ে আসা উচিত।’ – জাগোনিউজ

 

Developed by :