Thursday, 29 September, 2022 খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |




পূর্বধলায় নৌকার মুখোমুখি বিদ্রোহী প্রার্থী, আহত ১৬

নেত্রকোনা: আগামী ১০ মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও দলের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় উভয় পক্ষের ১৬ জন আহত হয়েছে।

আহতদের নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। গুরুতর আহত ৩ জনকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।


আহতরা হচ্ছেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জাহিদুল ইসলাম সুজনের সমর্থক জলিল খান, টিটু খান, জনি খান, রিপন ফকির, ফারুক ফকির, লুৎফুর খান, খোকন খান, দেলোয়ার খান এবং আওয়ামীলীগ স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ আলম তালুকদারের সমর্থক মজিবুর রহমান, লাক মিয়া, মোঃ আঃ লতিফ, মোঃ ফারুক মিয়া, সুমন মিয়া, কাসেম মিয়া, রতন মিয়া, আঃ রশিদ বেপারী।


শুক্রবার দুপুরের দিকে পূর্বধলা উপজেলার হিরনপুর বাজারে এই ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসময় বাজারে নৌকার নির্বাচনী অফিসে থাকা বঙ্গবন্ধু ও প্রাধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি, চেয়ার টেবিলসহ বাজারের ৪টি দোকান ভাংচুর করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা।


পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, শুক্রবার দুপুরের দিকে পূর্বধলা উপজেলার হিরনপুর বাজারে আওয়ামী লীগ স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ আলম তালুকদারের সমর্থকরা আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জাহিদুল ইসলাম সুজনের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে। এরই জের ধরে লাঠি সোটা নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কয়েক দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। ঘটনার পর থেকে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।


ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তাওহীদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ে আনে। বর্তমানে পরিস্থিত শান্ত রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।


এদিকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জাহিদুল ইসলাম সুজন জানান, বর্তমান এমপি ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল বীরপ্রতীকের সমর্থক আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ আলম তালুকদার। এমপির নির্দেশেই এই ধরনের ন্যাক্কারজনক কাজ করছে তারা। তিনি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।


























 

Developed by :